রাজবাড়ীতে ঘণ্টায় ঘণ্টায় লোডশেডিং: করোনা রোগিদের হাঁসফাঁস অবস্থা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

দিন ভর বিদ্যুৎ বিভ্রাটে নাকাল রাজবাড়ীবাসী। ঘন্টায় ঘন্টায় হচ্ছে লোডশেডিং। দুপুরের পর থেকে রাত পর্যন্ত বিদ্যুৎ সংকটে দুর্ভোগে পরেছে শহরবাসী। সেই সাথে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি থাকা রোগিদের অবস্থা শোচনীয়। বিদ্যুতের এই দুরাবস্থা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উঠৈছে সমালোচনার ঝড়।

স্থানীয় বিদ্যুৎ অফিস সূত্র জানায়, পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে কাঙ্ক্ষিত মাত্রায় বিদ্যুৎ পাওয়া যাচ্ছে না; তাই বেড়েছে লোডশেডিং।

রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিট থেকে ভর্তি রোগী সাংবাদিক হালিম বিশ্বাস জানান, “গেট তালাচাবি দেওয়া, জেনারেটর নাই, বিদ্যুৎ নাই, শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা”। অনেকেই বলছেন, তাদের যতটুকু উন্নতি, তার চেয়ে বেশি দুর্দিনের এই প্রাণান্তকর অবস্থা। এ প্রসঙ্গে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে তত্বাবধায়ক ডাঃ দীপক কুমার বিশ্বাস জানান, করোনা ইউনিট নতুন করা হয়েছে। ফলে সেখানে জেনারেটর সুবিধা প্রদান করা সম্ভব হয়নি।

দুপুরের আগ থেকে শুরু হয় ঘন্টায় ঘন্টায় এই লোডশেডিং যন্ত্রণা। রাজবাড়ী সদর উপজেলায় ২৪ ঘন্টায় বিদ্যুতের চাহিদা ২৭ মেগাওয়াট। কিন্তু উৎপাদন বিপর্যস্ত হওয়ার কারণে আজ পাওয়া গেছে মাত্র ১৫ মেগাওয়াট। অর্থাৎ চাহিদার প্রায় অর্ধেক বিদ্যুৎ পাওয়া যায়নি। সেই কারণে রাজবাড়ীর অঞ্চল ভিত্তিক ছয়টি ফিডারের মধ্যে বিদ্যুৎ বন্টন করা হচ্ছে।

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে বিপর্যস্তকর অবস্থায় রাজবাড়ীবাসী। বিদ্যুৎ না থাকার কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দিনভর দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়। পাশাপাশি প্রচন্ড গরম থাকায় বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ফলে শহরবাসীর মধ্যে অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে করোনা আক্রান্ত রোগী, যারা আইসোলেশন রয়েছে, তাদের দুর্ভোগ তৈরি হয়েছে বেশি। ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা জানান, প্রায়ই রাজবাড়ীতে বিদ্যুতের এমন যন্ত্রণাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। দুর্বল সঞ্চালন লাইন থাকার কারণে মাঝে মধ্যেই একটু বাতাসে বিদ্যুৎ চলাচল সরবরাহ ব্যাহত হয়। এছাড়া ভোল্টেজ ওঠানামা একটি নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এতে ঘরের মূল্যবান ইলেকট্রনিক যন্ত্র নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

ওদিকে, রাজবাড়ীর বাগমারায় তৈরি হচ্ছে বিদ্যুতের সাব-ষ্টেশন। দীর্ঘদিন ধরে কাজ চলমান থাকলেও বাস্তবায়ন অগ্রগতি কম। ফলে শক্তিশালী বিদ্যুৎ ব্যবস্থা পাওয়ার ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি হচ্ছে। একাধিক গ্রাহক জানান, সমস্যা দীর্ঘদিনের। কিন্তু বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নতি হচ্ছে না। সরকার বিদ্যুতে স্বয়ং সম্পূর্ণ হবার যেখানে ঘোষণা দিয়েছে, সেখানে রাজবাড়ীতে বিদ্যুতের অস্বাভাবিক লোডশেডিং অস্বস্তিকর।

ওয়েস্ট পাওয়ার জোন- এর রাজবাড়ীর নির্বাহী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থায় বিঘ্ন সৃষ্টি হয়েছে। যে কারণে চাহিদা মাফিক বিদ্যুৎ মিলছে না। ফলে লোডশেডিং দিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়া হচ্ছে। কখন এই সংকট থেকে উত্তরণ হবে তা জানা নেই।

(Visited 639 times, 1 visits today)