ঢাকাMonday , 22 August 2022

রাজবাড়ী আর.এস.কে ইনস্টিটিউশনের ম্যানেজিং কমিটি গঠনে অনিয়ম তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট

Link Copied!

সোহেল রানা, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :   


রাজবাড়ী শহরের ঐতিহ্যবাহী রাজা সূর্য কুমার ইনস্টিটিউশন (আরএসকে ইনস্টিটিউশন) এর ম্যানেজিং কমিটি গঠনে অনিয়ম ও দুনর্িিতর বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। সোমবার (২২ আগস্ট) সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে এক রিট আবেদনের শুনানী শেষে বিচারপতি জে.বি.এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিল এর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
এর আগে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. খান মোঃ জহুরুল হক মহামান্য হাইকোর্টে এ বিষয়ে একটি রীট পিটিশন দাখিল করেন। রিটকারীর পক্ষে শুনানী করেন সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ফাউজিয়া করিম।


উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের শেষ দিকে ‘আরএসকে ইনস্টিটিউশন’ এর একজন দাতা সদস্য অন্তর্ভূক্তির জন্য বিদ্যালয় র্কর্তৃপক্ষ স্থানীয় সংবাদপত্রে বিজ্ঞপ্তি প্রচার করে। ওই বিজ্ঞপ্তির আলোকে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. খান মোঃ জহুরুল হক মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা এর ২০০৯ সালের ৮ জুন তারিখের প্রবিধানমালার ২(চ)/(আ) এর বিধান অনুযায়ী গত ২০১৯ সালের ১৭ অক্টোবর রুপালী ব্যাংক লিঃ, রাজবাড়ী শাখায় আর.এস.কে ইনস্টিটিউশনের ৪৯৮৬ নং সঞ্চয়ী হিসাবে ২০ হাজার টাকা জমা প্রদান করেন। একই তারিখে তিনি সংযুক্ত ব্যাংক রশীদ সহ বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্তির জন্য প্রধান শিক্ষক বরাবর লিখিতভাবে আবেদনপত্র জমা দেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক ওই আবেদনপত্র নিজ স্বাক্ষরে গ্রহণ করেন।
কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করায় আরএসকে ইনস্টিটিউশনের নির্বাচন ও ম্যানেজিং কমিটি গঠন কার্যক্রম বন্ধ থাকে। পরবর্তীতে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা কর্তৃক জারীকৃত ঢাশিবো/রি/৫১২/বি-১/সাধারণ/৪৭৯ তারিখ : ১২/০৯/২০২১ ইং স্মারকের পত্র মোতাবেক প্রবিধানমালা-২০০৯ এর প্রবিধি ১২ থেকে প্রবিধি ২৮ পর্যন্ত দফাগুলো অনুসরণপূর্বক প্রবিধি ৭ ও ৮ মোতাবেক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের নির্দেশনা প্রদান করা হয়। কিন্তু রাজবাড়ী আর.এস.কে ইনস্টিটিউশনের ম্যানেজিং কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে বোর্ডের উক্তরুপ নির্দেশনা প্রতিপালন করা হয়নি।


অভিযোগ পাওয়া গেছে, বিদ্যালয়ের (আর.এস.কে ইনস্টিটিউশন) প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক সকল বিষয়ে অবগত হওয়া সত্ত্বেও সহকারী প্রধান শিক্ষক সহ বিভিন্ন নিয়োগ বাণিজ্য ও পছন্দের ব্যক্তিকে সভাপতি করার অসৎ উদ্দেশ্যে গত ৩০ ডিসেম্বর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা এর চেয়ারম্যান বরাবর (বেসরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন এস.আরও নং-৯৯-আইন/২০০৯ এর প্রবিধান ৭ ও ৮মোতাবেক কমিটি প্রদান প্রসঙ্গে) নিজের মনমত একটি কমিটির তালিকা প্রেরণ করেন। ওই কমিটি চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারী ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান অনুমোদন করেন।
তথ্যানুসন্ধানে জানাযায়, শর্ত পূরণ সাপেক্ষে এ্যাড. খান মোঃ জহুরুল হক ম্যানেজিং কমিটির একমাত্র বৈধ দাতা সদস্য হিসেবে গণ্য থাকা সত্ত্বেও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক সুকৌশলে দাতা সদস্যের নির্দ্ধারিত ১১ নং ক্রমিকে নাম সংযুক্ত না করে ‘শূণ্য’ পদ লিখে অনিয়মের আশ্রয় গ্রহণ করে। এ কারণে ম্যানেজিং কমিটির তালিকায় দাতা সদস্যের পদটি শূণ্য থাকায় একমাত্র দাতা সদস্য হিসেবে আইনগত বৈধতা সত্ত্বেও প্রবিধানমালা-২০০৯ এর প্রবিধি ৮ অনুসারে তিনি ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচনের সুযোগ ও অধিকার থেকে বঞ্চিত হন। এ সুযোগে প্রধান শিক্ষক তার ইচ্ছামাফিক হাইকোর্টের নির্দেশনা লঙ্ঘন করে টানা তৃতীয় মেয়াদে গণেশ নারায়ন চৌধুরীকে সভাপতি হিসেবে স্থলাভিষিক্ত করেন।


এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে এ্যাড, জহুরুল হক বলেন, তথ্য গোপন করে সম্পূর্ণ বেআইনীভাবে ও বোর্ড কর্তৃক জারীকৃত প্রবিধান লংঘন করে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কারণে রাজবাড়ী “আর.এস.কে ইনস্টিটিউশন” এর ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধান-২০০৯ এর প্রবিধি ৩৮ ধারা অনুযায়ী বাতিল ও অকার্যকর হওয়া আবশ্যক।
জানাগেছে, তথ্য গোপনের বিষয়ে রাজবাড়ী জেলা বার এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি এ্যাড. স্বপন কুমার সোম স্বাক্ষরিত একটি লিগ্যাল নোটিশ প্রধান শিক্ষক বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ফোরামের পক্ষ থেকেও অনিয়মতান্ত্রিকভাবে গঠিত ম্যানেজিং কমিটি বাতিলের দাবী জানান হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল হাসান জানান, কমিটি গঠনে অনিয়ম সংশোধনের বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

(Visited 658 times, 1 visits today)