রাজবাড়ীতে পদ্মার পানি বিপদ সীমার ৪৪ সে:মি: উপরে, প্লাবিত হতে শুরু করেছে নিম্নাঞ্চল –

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

গত কয়েকদিন ধরে রাজবাড়ীতে পদ্মানদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। আর এতে পদ্মা নদীর নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে। গত কছেশ দিন ধরে পদ্মার পানি বিপদ সিমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। শুক্রবার সকালে গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া গেজ স্টেশনের পদ্মার পানি বেড়ে বিপদ সিমার ৯.০৯ পয়েন্ট অর্থাৎ ৪৪ সেঃ মি ঃ উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গতকাল বৃহস্পতিবারের চাইতে আজ শুক্রবার পদ্মার পানি বেড়েছে ৬ সেঃ মিঃ। প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে।


পানি বাড়ার কারনে নি¤œাঞ্চলে বসবাসরত কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পরেছে। আবাদী জমির পাট, বোনা আমন ধান, সবজি,পটল,মরিচ,বাদাম সহ বিভিন্ন ফসলাদি নষ্ট হচ্ছে, রাস্তা ঘাট, মানুষেরবসত বাড়ির চারপাশে পানি উঠে এসব অঞ্চলেলজনসাধারন পানি বন্দি হয়ে পেরেছেন। সাধারন মানুষের চলাচলের রাস্তা ,ফসলি জমি,বাজার ঘাট ডুবে যাওয়ায় তাদের এখন চলাচল করতে এবং বাজার ঘাটে যেতে কষ্ট হচ্ছে নৌকা দিয়ে পার হয়ে বিভিন্ন স্থানে যেতে হচ্ছে তাদের। পাট ও ধাান ক্ষেত পানিতে তলিয়ে যওয়ার কারনে পাট কাটার আগে তা নষ্ট হওয়ার সম্ভবনা দেখছেন কৃষকেরা। এতে তারা পরেছেন লোকসানের মুখে।


আর কয়েকদিন পর পাট কাটার কথা ছিল কিন্তু পানিতে ডুবে যাওয়ার কারনে সঠিক সময়ে পাট কাটতে না পারলে লোকসানের মুখে পরবেন তারা। জেলার ৫টি উপজেলার ৪টি উপজেলাই পদ্মানদীর তীরবর্তী হওয়ায় এসব অঞ্চলের নি¤œাঞ্চল প্রতিবছরই প্লাবিত হয়।আর এতে নানা সমস্যায় পরেন এ অঞ্চলে বসবাসরত সাধারন মানুষ।

বর্তমানে এ ৪টি উপজেলার রতনদিয়া, কালিকাপুর, মিজানপুর, বরাট, ছোট ভাকলা, দেবগ্রাম ও দৌলতদিয়ার কুশাহাট এ ৮ থেকে ১০টি ইউনিয়নের নি¤œাঞ্চলের আবাদী জমি প্লাবিত হয়েছে। আর পানি বন্দি রয়েছেন এসব এলাকায় বসবাসরত কয়েক হাজার সাধারন মানুষ। সবকিছু ডুবে যাওয়ায় নৌকাই দিয়ে চলাচল করছেন এখানকার মানুষ

(Visited 306 times, 1 visits today)