৫ জনকে ২৯ লক্ষ টাকার অনুদান প্রদান –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

আজ  সোমবার দুপুরে রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী চাকুরীরত অবস্থায় মৃত ৪ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর পরিবারদের মধ্যে ৫ জনকে ২৯ লক্ষ টাকার অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন।
এ সময়ে উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার মোঃ বাকাহীদ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আশেক হাসান, সহকারী কমিশনার মোঃ মহিউদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ মকবুল হোসেন খানসহ সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
বেসামরিক প্রশাসনে চাকরিরত অবস্থায় কোন সরকারি কর্মকর্তা/কর্মচারীর মৃত্যুবরণ এবং গুরুতর আহত হয়ে স্থায়ী অক্ষমতাজনিত কারণে আর্থিক অনুদান প্রদান নীতিমালা, ২০১৩ অনুযায়ী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ৫৫তম কেন্দ্রীয় বাছাই কমিটির সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২৩/০৩/২০১৯ তারিখের ১৯৯ সংখ্যক স্মারকে রাজবাড়ী জেলার ৭ জনের অনুকুলে ২৯ লক্ষ টাকার অনুদান মঞ্জুরি প্রদান করা হয়। তদনুযায়ী রাজবাড়ীর সহকারী কমিশনার জনাব মোঃ আরিফুজ্জামান গত ২৮ মে, ২০১৯ তারিখ ৭ জনের অনুকুলে বরাদ্দকৃত অর্থের চেক জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হতে গ্রহণ করে নিয়ে আসেন। ৭ জনের মধ্যে আজ ১০ জুন, ২০১৯ তারিখ ৫ জন আবেদনকারী উপস্থিত থাকায় তাদের চেক হস্তান্তর করা হয়। যারা চেক পেয়েছেন তাদের মধ্যে মোঃ সেকেন্দার আলী, গ্রাম-তারাপুর, পোঃ বাহাদুরপুর, উপজেলা-পাংশা পেয়েছেন ৫ লক্ষ টাকার চেক। তার স্ত্রী মমী শান্তা, সহকারী শিক্ষক, ৭২ নং রঘুনন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করায় স্বামী মোঃ সেকেন্দার আলী ৫ লক্ষ টাকার অনুদানের চেক পেয়েছেন। গোয়ালন্দ উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়ের অফিস সহায়ক মোছাঃ আল্লাদি বেগম চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করায় তার ছেলে মোঃ শাহিন শেখ এবং মেয়ে সোনিয়া আক্তার, সাং বৃগোপালপুর, পোঃ হাটমদাপুর, উপজেলা-কালুখালী ৪ লক্ষ টাকা করে মোট ৮ লক্ষ টাকার চেক পেয়েছেন। নাদুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ আমিরুল ইসলাম চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করায় তার স্ত্রী মোসাঃ ফরিদা বেগম, সাং- গাংধাইর, পোঃ বিশইসাওরাইল, উপজেলা-পাংশা পেয়েছেন ৮ লক্ষ টাকার চেক। রাজধরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কার্নিচ ফাতেমা চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করায় তার স্বামী মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন মোল্লা, ওয়ার্ড নং ৬, সজ্জনকান্দা, রাজবাড়ী পৌরসভা পেয়েছেন ৮ লক্ষ টাকার চেক। অনুদানের চেক প্রদানের সময় জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী মৃতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাদের পরিবারের অনুকুলে বরাদ্দকৃত অনুদানের অর্থের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য বরাদ্দগ্রহিতাদের প্রতি অনুরোধ জানান।

(Visited 213 times, 1 visits today)