পাংশার সিফাত হত্যার ৩ আসামী গ্রেপ্তার : থানায় এসে গ্রামবাসীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

শুক্রবার দুপুরে হঠাৎ গ্রামবাসীরা থানায়। ফলে উৎসুক অনেকেই দিচ্ছিলো উকি-ঝুকি। তবে তাদের সব প্রশ্নের জবাব উঠে আসে আগতদের থানায় আসার কারণ জানার পর। ওই সময় থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন তাদের মাঝে আসেন এবং আগতরা তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।


আগতরা জানিয়েছেন, গত ১২ জানুয়ারী রাতে উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া গ্রামে মোঃ সাজেদুর রহমান সিফাত নামে একজন কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় সিফাতের মা সাবানা খাতুন বাদী হয়ে পাংশা মডেল থানায় ২২ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবীতে স্থানীয়রা নানা ধরণের কর্মসূচী পালন করে। তবে পুলিশ পর্যায়ক্রামে প্রধান আসামি একই গ্রামের ওয়াজেদ প্রমাণিকের ছেলে সেলিম প্রমাণিক, সোবাহান প্রামাণিকের ছেলে হেলাল উদ্দিন প্রমাণিক ও নিজাম প্রমাণিকের ছেলে রুবেল প্রমাণিককে গ্রেপ্তার করে।


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পাংশা মডেল থানার এসআই মিজানুর রহমান জানান, এজাহার ভুক্ত আসামি ওই তিন জনকে গ্রেপ্তারের পর রুবেল প্রমাণিক আদালতে হত্যার ঘটনার স্বাকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করে। এতে নিহত সিফাতের পরিবারের সদস্যরা এবং এলাকাবাসীর মধ্যে সস্থি ফিরে আসে। যে কারণে স্থানীয়রা পাংশা থানার ওসি সহ সংশ্লিষ্ঠদের প্রতিকৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে তারা থানায় আসে।


পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, তারা আসলে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করার মত কোন কাজ করেন নি। এটা সিলো তাদের কর্তব্য। তারা সে কর্তব্যের অংশ হিসেবে আসামিদের গ্রেপ্তার এবং ঘটনা উৎঘাটন করতে সমর্থ হয়েছেন। তাদের এই কাজের ধারা অব্যাহত রাথে তিনি পাংশার সাধারণ মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

ফেসবুক থেকে এ ভিডিওটি দেখা না গেলে TV Rajbari লিখে ইউটিউবে সার্চ দিলেও দেখা যাবে।

(Visited 293 times, 1 visits today)