“নছিমনের চাকার মধ্যে ৭৫ বোতল ফেনসিডিল”

আল মামুন আরজু :

U77itled-1

নানা পদ্ধতী অবলম্বন করে ব্যবসায়ীরা পাচার করছেন মাদকদ্রব্য। গত বুধবার দুপুরে এমনি অভিনব কৌশলে ফেনসিডিল পাচারের সময় পুলিশ সদস্যরা হাতে নাতে উদ্ধার করেছে ৭৫ পিচ ফেনসিডিলের বোতল। তবে তারা মাদক ব্যবসায়ীদেরকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। সু-চতুর ওই মাদক ব্যবসায়ীরা নছিমন ও ফেনসিডিল গুলো ফেলে রেখে সটকে পরেন।
জানাগেছে, রাজবাড়ী জেলা সদরের পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের সভার গ্রামের সেকেন সেখের ছেলে ফরিদ সেখ (৩০) এবং জেলা সদরের চরলক্ষিপুর গ্রামে থাকা তার মামা ও স্থানীয় আহম্মদ আলীর ছেলে বিল্লাল হোসেন দীর্ঘ দিন যাবৎ মাদক দ্রব্যের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সাম্প্রতিক সময়ে মাদক দ্রব্যসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়ে বিল্লাল হোসেন কারাগারে যান। এর পর থেকেই ফরিদ সেখ একাই ওই মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।
রাজবাড়ী থানার এসআই জিল্লুর রহমান বলেন, গতকাল বুধবার দুপুরে ফরিদ সেখ তার মাদক ব্যবসায়ী মামা বিল্লাল হোসেনের স্যালো ইঞ্জিন চালিত নছিমনের দু’টি বাড়তি চাকার মধ্যে ফেনসিডিল ঢুকিয়ে তা চালিয়ে আসে। একই সাথে ফেনসিডিলসহ নছিমনটি সে জেলা শহরের রাজবাড়ী পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের চরলক্ষিপুরে থাকা মামা বিল্লাল হোসেনের বাড়ীতে নিয়ে যায়। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন রাজবাড়ী থানা পুলিশের সদস্যরা। তারা ওই বাড়ীতে প্রবেশ করতেই সুকৌশলে মাদক ব্যবসায়ী ফরিদ সেখ নছিমন ও ফেনসিডিল ফেলে পালিয়ে যায়। পরে ওই নছিমনের দুইটি চাকার টায়ার খুলে পুলিশ সদস্যরা ৭৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে এবং ফেনসিডলসহ নছিমনটি থানায় নিয়ে আসে।

(Visited 21 times, 1 visits today)