বালিয়াকান্দিতে বেকারী গুলোতে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে তৈরী হচ্ছে শিশু খাদ্য

49

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলাতে বেকারী গুলোতে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে তৈরী হচ্ছে শিশু খাদ্য । এ খাদ্য খেয়ে সাধারনত শিশুরা নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। প্রশাসনের নজরদারী না থাকার কারণে বেকারী মালিকরা তাদের কার্যক্রম খুব দাপটের সাথেই চালিয়ে যাচ্ছেন। এতে ভোক্তারা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সচেতন অভিভাবকরা সুষ্টু ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশ সৃষ্টির জন্য ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনার দাবী জানিয়েছেন।

বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের ইলিশকোল বাজার এলাকায় গজিয়ে উঠেছে কয়েকটি বেকারী। দিনের বেলায় বেকারী গুলোর সামনের দরজা বন্ধ রেখে ভিতরে কাজ করে। যাতে প্রশাসন বা ভ্রাম্যমান আদালত গিয়ে বন্ধ দেখতে পায়। আলমগীর মল্লিকের আলম বেকারীতে গিয়ে দেখা যায়, নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরী হচ্ছে শিশু খাদ্য। ময়দা, চিনি ও সরঞ্জামাদি রয়েছে ছড়ানো ছিটানো ও ভিতরে স্যাত স্যাতে পরিবেশ। পাশেই খোকন শেখের মালিকানাধীন বেকারী সেটার মধ্যে গিয়েও দেখা গেল একই পরিবেশ। আবার কেউ কেউ বেকারী ব্যবসার আড়ালে করছে সুদের কারবার। এছাড়াও জামালপুর, বহরপুর, নারুয়া, সোনাপুর বাজারে গজিয়ে উঠেছে বেকারী। বেকারী গুলোর মধ্যে অনেকেরই বিএসটিআইয়ের অনুমোদন নেই। প্যাকেটের গায়ে মেয়াদ উত্তীর্নের তারিখও লেখা থাকে না। এসকল বেকারীর তৈরীকৃত শিশু খাদ্য হাট-বাজার ও গ্রাম-গঞ্জের দোকান গুলোতে শোভা পাচ্ছে। অনভিজ্ঞ লোকজন তাদের সন্তানদের হাতে তুলে দিচ্ছে খাদ্য। এতে নানা রোগেও আক্রান্ত হচ্ছে।

তবে বেকারী মালিকদের দাবী তারা প্রশাসনের অনুমতি ও যোগাযোগের মাধ্যমেই বেকারীর ব্যবসা পরিচালনা করছে। এলাকার সচেতন অভিভাবকরা বিএসটিআই ও ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের দাবী জানিয়েছেন।

(Visited 55 times, 1 visits today)