“তোর স্বামীর মত তোকেও পরপারে পাঠিয়ে দেব”

সোহেল রানা :

=ed-1

“তোরা বেশি বাড়াবাড়ি করছিস, আমাদের গ্রেপ্তার দাবীতে মানববন্ধন করবি। তাতে কোন লাভ হবে না, আমি আওয়ামীলীগ করি। পুলিশ আমাকে ধোরবে না, তোর স্বামীর মত তোকেও পরপারে পাঠিয়ে দেব। দুই সন্তান নিয়ে চুপ-চাপ থাক, নইলে বুঝিয়ে দেব। মানববন্ধন-সমাবেশ করে লাভ হবে না। প্রকাশ্য সমাবেশে কথা গুলো বললেন, হত্যা হওয়া রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আলাউদ্দিন হোসেন জিন্নাহ’র স্ত্রী এবং ওই হত্যা মামলার বাদী আন্না বেগম।
গত রবিবার সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত জিন্œাহ’র হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের রামদিয়া বাজার শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি চত্বরে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় যোগদানের পূর্বে এ মামলার প্রধান আসামী ও পাশ্ববর্তী নবাবপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন বাদী আন্না বেগম কে রবিবার সকালে এ কর্মসূচী পালনের পূর্বে হুমকি দিয়েছে। আন্না বেগম আরো জানান, থানায় মামলা থাকলেও আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরছে এবং হুমকি দিচ্ছে। যে কারণে তার পরিবার সদস্যরা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তিনি দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার পূর্বক ফাঁসির দাবী জানান।
সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, বাজার ব্যবসায়ী মাসুদ রানা রিয়াদ, আওয়ামীলীগ নেতা খলিলুর রহমান, নিহতের ৫ বছর বয়সী ছেলে আব্দুল্লাহ ও মেয়ে সুমাইয়া আক্তার মিম। বক্তারা বলেন, এ কর্মসূচী পালনের পূর্বে মামলার আসামী আনোয়ার হোসেন ও তার সঙ্গীয়রা রামদিয়া বাজারে আসেন এবং বাজার ব্যবসায়ীদের মানববন্ধনে যোগ না দেবার জন্য বলেন।
জানাগেছে, রেজিষ্ট্রি ডাকযোগে মৃত্যু পরোয়ানার চিঠি দিয়ে যুবলীগ নেতা আলাউদ্দিন হোসেন জিন্নাহকে ২০১৩ সালের ৮ ডিসেম্বর রা পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় জিন্নাহ’র স্ত্রী বাদী আনোয়ার হোসেন ও রাজীব মিয়াকে আসামী করে রাজবাড়ীর ১ নং আমলী আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলাটি চলতি বছরের ৪ জুলাই বালিয়াকান্দি থানায় নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বালিয়াকান্দি থানার এসআই আতাউর জানান, ময়না তদন্তের রিপোর্টে দেখা গেছে জিন্নাহ’র সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে। তবে জিন্নাহ’র হত্যা মামলা দায়ের করলেও সিনিয়র কর্মকর্তাদের নির্দেশনার পরই ওই মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার করা হবে।

(Visited 31 times, 1 visits today)