পাংশা সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশের এএসআই নিহত

গতকাল শুক্রবার সকালে জেলার পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের নাচনা শিহর নামক স্থানে বাসের ধাক্কায় পুলিশের এ,এস,আই সাগর আহম্মেদ (২৮) নিহত হয়েছে। তার পিতার নাম নুরুল ইসলাম। বাড়ী গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার উজিলাব গ্রামে। সে ২০০৪ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। তিনি জেলার গোয়ালন্দের দৌলতদিয়ার নৌ-ফাঁড়ি থেকে গত ১৭ জুন পাংশা থানায় যোগদান করেন।

পাংশা থানার এসআই কামাল হোসেন ভুইয়া বলেন, গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে সাগর আহম্মেদ পাংশা থানা থেকে মোটর সাইকেলে উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের বড়–রিয়া গ্রামে ওয়ারেন্টে ভুক্ত আসামী গ্রেপ্তারের উদ্দেশ্যে রওনা হন। সে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া মহা-সড়কের নাচনা শিহর নামক স্থানে পৌঁছাতেই কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা রাজমহল পরিবহণের একটি দ্রুতগামী লোকাল বাসের সাথে তার ব্যবহৃত (লাল রংয়ের পালসার) মোটর সাইকেলটির সজোড়ে ধাক্কা লাগে। এতে তার মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম হয়। তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সে সময়ই পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে বলে ঘোষণা করেন।

পাংশা থানার ওসি আবুল বাশার জানান, খবর পেয়ে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ রেজাউল হক পিপিএমসহ জেলা পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। দুপুরে মর্গে লাশটির ময়না তদন্ত শেষে বিকালে রাজবাড়ীর পুলিশ লাইনে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাজায়, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ রেজাউল হক পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহম্মেদ, সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীবসহ জেলা পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তা, পুলিশ সদস্যসহ এলাকাবাসীরা অংশ গ্রহণ করেন। পরে জেলা পুলিশর পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান প্রদান করার পাশাপাশি লাশ সাগারের পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

(Visited 48 times, 1 visits today)