হ্যারিকেন, মোমবাতি, হাতপাখা নিয়ে মহিলা পরিষদের মানববন্ধন

লিটন চক্রবর্তী :

DSC09===473

রাজবাড়ীতে বিদ্যুতের অব্যাহত লোডশেডিং, অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ বিভ্রাটসহ বিদ্যুৎ বিভাগের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাজপথে নেমেছে জেলা বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।
গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মহিলা পরিষদের জেলা কার্যালয়ের সামনের সড়কে শতাধিক নারী পুরুষ হাতে হ্যারিকেন, মোমবাতি, হাতপাখা নিয়ে এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। এক ঘন্টা ব্যাপী এই বন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, জেলা বাসী অন্ধকারে ডুবে থাকলেও জাতীয় পুরুস্কার পায় বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তারা। তারা বলেন, সরকার যখন বিদ্যুৎ নিয়ে গর্ব করে, তখন রাজবাড়ীতে বিদ্যুতের এই দুরবস্থা কারও কাম্য নয়। বিদ্যুৎ যখন দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকে তখন অসহনীয় দূর্ভোগে পরে ছাত্র-ছাত্রীসহ অসুস্থ্য বৃদ্ধ মানুষেরা। পাশাপাশি চুরি ছিনতাই, রাহাজানি বৃদ্ধিপায় পাল্লা দিয়ে। বক্তারা বিদ্যুৎ অফিসের আবাসিক প্রকৌশলীর অপসারণ অথবা বদলীর দাবী জানান। তারা আরো বলেন, আমাদেও এই স্বল্প পরিষদেরর মানববন্ধন বন্ধন কর্মসূচীকে জনপ্রতিনিধি আর প্রশাসনের টনক না নড়ে তাহলে হাজার হাজার মানুষ মিলে বৃহত্তর আন্দোলনের মাধ্যমে দাবী আদায় করা হবে। বক্তারা ফরিদপুর বা অন্যকোথা হতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে জাতীয় গ্রীড থেকে রাজবাড়ীতেই পাওয়ার জোন স্থাপনের দাবী জানান।
মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, জেলা মহিলা পরিষদের সভানেত্রী লাইলী নাহার, কেন্দ্রীয় নেত্রী এডঃ দেবাহুতি চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ পূর্ণিমা দত্ত, সহ-সভাপতি সুলতানা আহম্মেদ, সবিতা গুহ, সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ নাজমা সুলতানা, সদর থানার সভাপতি ফেরদৌসি সুলতানা মায়া, জেলা সদরের সহ-সভাপতি নমিতা দাস, ফরিদপুর ব্যপ্টিষ্ট চার্চ ফেলোসিপের সভাপতি জেমস হালদার, জেলা উদীচীর সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

(Visited 31 times, 1 visits today)