বালিয়াকান্দিতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের মালামাল দিয়ে ব্যাক্তিমালিকানার বাড়ীর রাস্তা নির্মান !

সোহেল রানা :

Bk-0002

রাজবাড়ী সড়ক ও জনপদ বিভাগের রাস্তা সংস্কারের জন্য মালামাল ব্যবহার করে বালিয়াকান্দি উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে ব্যাক্তি মালিকানার বাড়ীর রাস্তা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিন তদন্ত করে অভিযোগ দাখিল করলেও দোষীদের বিরুদ্ধে রহস্যজনক কারণে কোন ব্যবস্থা নেয়নি কতৃপক্ষ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সড়ক ও জনপদ বিভাগের রাস্তা সংস্কারের জন্য বরাদ্ধকৃত সরকারী মালামাল দিয়ে দুর্গাপুর গ্রামের হাবিবুল ইসলাম ওরফে লাল সরদারের বাড়ী প্রবেশের রাস্তা প্রায় ২০০ ফিট পিছ ঢালাই করা হয়েছে। তবে সরকারী মালামাল দিয়ে কিভাবে কাজ হলো বিষয়টি জানার জন্য একাধিকবার লাল সরদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।
এব্যাপারে সড়ক ও জনপদ বিভাগের ড্রাইভার আঃ মজিদ বলেন, আমার অন্যায় হয়ে গেছে। তবে এ কাজের সাথে কারা জড়িত ও কত টাকার বিনিময়ে করা হয়েছে তার কোন সদোত্তর দেয়নি।
সড়ক ও জনপদ বিভাগের এ্যাসিষ্টেন গোলাম আযম জানান, আমি একাজ সম্পর্কে কিছু জানি না ও কোন মন্তব্য করতে পারব না।
সড়ক ও জনপদ বিভাগের এস,ও কামরুজ্জামান জানান, গত ৭ সেপ্টেম্বর রাজবাড়ী সড়ক ও জনপদ বিভাগের গাড়ি চালক আঃ মজিদ ও লেবার আলাউদ্দিনসহ বাহিরের ৫জন শ্রমিক নিয়ে বালিয়াকান্দি-মধুখালী সড়ক মেরামতের জন্য আসে। ওই মালামাল ব্যবহার করে ব্যাক্তিমালিকানার রাস্তা নির্মানের অভিযোগ উঠলে মঙ্গলবার সকালে ওয়ার্ক এ্যাসিসষ্টেন গোলাম আযমকে সঙ্গে নিয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখতে পাই জামালপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের হাবিবুল ইসলাম লাল সরদারের বাড়ীর রাস্তা তৈরী করেছে। বিষয়টি লিখিত ভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, ড্রাইভার ও শ্রমিকের বেতন থেকে বিটুমিনের জন্য ৯হাজার টাকা, পাথরের জন্য ২ হাজার টাকা কর্তন করা হবে।
এলাকাবাসী দ্রুত অপরাধিদের সনাক্ত পুর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন।

(Visited 16 times, 1 visits today)