দৌলতদিয়ায় দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার ঘরমুখো মানুষের উপচে পরা ভীড়

আজু সিকদার :

MOV03006.AVI_000004637

আর মাত্র এক দিন পরই ঈদ উল ফিতর। নারীর টানে শেষ মূহুর্তে রাজধানী থেকে ছুটছেন ঘরমুখো মানুষ। যে কারণে লাখো মানুষের পদচারনায় মুখেরিত হয়ে উঠেছে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলা অন্যতম প্রবেশদ্বার রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট। ট্রলার, লঞ্চ ও ফেরিতে পার হয়ে আসা যাত্রীদের উপচেপড়া ভীড় ছিল ঘাট এলাকায়। সেই সাথে বাস-ট্রাক, মাইক্রেবাস ও প্রাইভেটকারে আসছেন যাত্রীরা।
রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক মোঃ রফিকুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম-এর নেতৃত্বে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের প্রশাসনের কর্মকর্তারা দৌলতদিয়ার লঞ্চ ও ফেরী ঘাট সরেজমিনে তদারক করছেন। আগতযাত্রীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা এবং লঞ্চ ও যানবাহনে অতিরিক্ত যাত্রীর বহন না করার বিষয়টি গুরুত্বে সাথে দেখভাল করছেন। আগেই ঘাট এলাকায় কুলিদের লাল পোশাকসহ পরিচয় পত্র বহন, পুলিশের মাইক ছাড়া কোন মাইক ব্যবহার নিষিদ্ধ, ঘাট এলাকায় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থাসহ কোন ফেরি বিকল হলে তাৎক্ষনিক মেরামতের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-রুটে ৩৭টি লঞ্চ এবং ছোট ও বড় মিলিয়ে ১৮টি ফেরী নিয়মিত চলাচল করছে। দৌলতদিয়া প্রান্তে যানবাহনের চাপ কম থাকলেও পাটুরিয়া প্রান্তে রয়েছে অধিক চাপ। ফলে দৌলতদিয়া থেকে লঞ্চ ও ফেরী গুলো অনেকটা যাত্রী ও যানবাহন শুন্য হয়েই দ্রুত পাটুরিয়া ঘাটে যাচ্ছে এবং পাটুরিয়া থেকে যাত্রী ও যানবাহন পূর্ণ লোড নিয় ফিরে আসছে।

(Visited 13 times, 1 visits today)