রাজবাড়ীতে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রাম্য ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নবম শ্রেণীতে পড়–য়া এক ছাত্রী (১৬) কে একাধিকবার ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই অভিযোগে মেয়েটির পালক বাবা বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার সকালে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলায় রাজবাড়ী জেলা সদরের খানগঞ্জ ইউনিয়নের ঘুঘুসাইল গ্রামের মৃত হবিবর মোল্লার ছেলে ও গ্রাম্য দাঁতের ডাক্তার টিপু সুলতান (৩০)।
গতকাল সকালে রাজবাড়ী থানা হেফাজতে থাকা ওই ছাত্রী জানায়, স্থানীয় বাজারে টিপু সুলতানের ‘রাহাত ডেন্টাল’ নামে একটি দোকান রয়েছে। বিদ্যালয়ে আসা যাওয়া পথে টিপু ওই দোকানে বসে তাকে প্রেম নিবেদনের পাশাপাশি কু-প্রস্তাব দিতো। এক পর্যায়ে সে তার প্রেমের প্রস্তাবে সারা দেয় এবং গত তিন বছর ধরে সে তার সাথে প্রেম করছে। তবে গত এক বছর ধরে টিপু তাকে বিয়ে কথা বলে ধর্ষণ করে আসছে। সর্বশেষ গত শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে টিপু চুপি চুপি তাদের বাড়ীতে আসে এবং বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে ফের ২/৩ দিনের মধ্যে বিয়ের আস্বাস দিয়ে নিজ ঘরের মধ্যে ধর্ষণ করে। তবে সে তাকে বিয়ে না করে তালবাহানা শুরু করে। যে কারণে বিষয়টি সে তার পরিবারের সদস্যদের অবহিত করেন।
ওই ছাত্রীর পালক বাবা বলেন, এ মেয়েটির মাত্র ১৩ দিন বয়সে তা মা মারা যায়। তার পর থেকে তিনি মেয়েটির বাবা এবং তার স্ত্রী মেয়েটির মা হিসেবে তাকে লালন-পালন করে আসছেন। এমন একটি অসহায় মেয়েকে বিয়ে আস্বাস দিয়ে টিপু ধর্ষণ করেছে। বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মিমাংশার চেষ্টা চালানো হয়। তবে টিপুর পরিবারের সদস্যরা তাতে রাজি হয়নি।
মেয়েটির খালা জানায়, টিপু একজন লম্পট। সে নিয়মিত ভাবে মাদক সেবন করে। সেই সাথে তার বিরুদ্ধে আরো বেশ কয়েকজন মেয়ের সাথে অপকর্ম করার অভিযোগও রয়েছে।
রাজবাড়ী থানার ওসি মোহাম্মদ আবুল বাশার মিয়া বলেন, ওই ঘটনায় মেয়েটির পালক বাবা বাদী হয়ে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গতকালই রাজবাড়ী হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয়েছে। সেই সাথে আসামি টিপুকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

(Visited 767 times, 1 visits today)