হুমকিতে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট, পদ্মার ভাঙনে এক দিনে পাঁচ পরিবার গৃহহীন –

মেহেদী হাসান, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

N77WS-1

পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে নদী ভাঙন শুরু হয়েছে গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ৪ নং ফেরি ঘাট এলাকায়। এতেকরে সোমবার কয়েক ঘন্টার মধ্যে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট সংলগ্ন বাহির চর গ্রামের পাঁচটি পরিবারের বাড়ি-ঘর নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এখনও পর্যন্ত কোন ব্যাবস্থা গ্রহন করেনি পানি উন্নয়ন বোর্ড যদিও পরিস্থিতি বুঝে ব্যাবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।
গত সোমবার সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে ভেঙ্গে যায় দৌলতদিয়া ফেরিঘাট সংলগ্ন বাহির চর গ্রামের গেদা মন্ডল, আ. সামাদ শেখ, মো. মনির হোসেন, মো. লাল্টু মোল্লা ও মো. মিরাজ মোল্লা বসতিঘর সহ কয়েকটি ঘরবাড়ি। এছাড়া দেশের গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া ফেরিঘাটসহ সংলগ্ন দুইটি গ্রাম হুমকির মুখে রয়েছে। এ সকল গ্রামের অনেকেই তাদের ঘর-বাড়ি গুটিয়ে অন্যত্র চলে যেতে শুরু করেছে।
স্থানীয়রা জানান, চলতি শুষ্ক মৌসুমে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে ভাঙন দেখা দেয়। নদীতে পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে গত দুই/তিন দিন ধরে নদী ভাঙন সামান্য ভাঙ্গলেও সোমবার এটি রুপ নেয় ভয়াবহতায়। দ্রুত প্রতিরোধ মুলক ব্যবস্থা না নিলে এ বর্ষা মৌসুমে এ ঘাটসহ বৃস্তৃর্ণ এলাকা নদীতে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।
স্থানীয়রা আরও জানান, একদিনের নদী ভাঙ্গনে তারা সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসে গেছেন। দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের চ্যানেলের উজানে থাকা চরটি ভেঙ্গে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। চরটি ভেঙ্গে ও বর্ষার পানিতে ভেষে যাওয়ায় পদ্মার মূল ¯্রােত সরাসরি আঘাত হানছে ফেরি ঘাটসহ এই এলাকায়। ভাঙ্গনে কয়েকদিন আগে ২ নং ঘাটটির অনেকটা অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হলে বেশ কিছুদিন ঘাটটি বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া ওই ঘাট সংলগ্ন ছিদ্দিক কাজীর পাড়া, মজিদ শেখের পাড়া, শহীদ বেপারীর পাড়া, চালাক পাড়া এলাকার অনেক মানুষ তাদের ঘর-বড়ি সরিয়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছে। এ সকল গ্রামের অন্তত ৩শ পরিবার ও অর্ধশত দোকান ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে।
গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, গোয়ালন্দ উপজেলাটি নদী ভাঙ্গন কবলিত এলাকা। উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ সোমবার পরিদর্শন করে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট সংলগ্ন বাহির চর গ্রামের নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে গ্রামটিকে রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় সকল ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

(Visited 142 times, 1 visits today)