বহরপুরের অসহায় বিধবা বৃদ্ধা’র পাশে দাঁড়ালেন বালিয়াকান্দি’র ইউএনও আম্বিয়া সুলতানা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুরে সাবিত্রী দত্ত (৬৫) নামে অসহায় এক বিধবা বৃদ্ধাকে মারপিট করে বাড়ী ছাড়া করেছে তার স্বজনরা। এ ঘটনার খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে ওই বৃদ্ধার বাড়ীতে গিয়েছেন, বালিকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আম্বিয়া সুলতানা।


সে সময় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বহরপুর ইউনিয়ন শাখার সভাপতি রোমানা কবিরসহ সনাতন ধর্মীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে পুনরায় জমি পরিমাপ করে ওই বৃদ্ধার সম্পত্তি বুঝিয়ে দেবার কথাও তিনি জানিয়েছে।


সাবিত্রী জানান, প্রায় ১৫ বছর আগে তার স্বামী অতুল দত্দ মারা গেছে। স্বামীর মৃত্যুর পর ছেলে অপু দত্ত ও সনু দত্ত নিরুদ্দেশ হয়। এর পর থেকে স্বামীর ভিটায় থাকা ঘরে বসবাস করে আসছেন তিনি। যদিও ছেলেরা না থাকা তার সরিক রবি দত্ত ও মনোতোষ দত্ত এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা তাকে নানা রকম অত্যাচার শুরু করে। এক পর্যায়ে তিনি প্রতিবেশির বাড়ীতে আশ্রয় নেন এবং মাঝে মধ্যে বাড়ীতেও থাকেন। খাওয়া-দাওয়া করেন তিনি চেয়ে চিন্তে। এরই মাঝে গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই সব সরিকরা তাকে উচ্ছেদ করতে তা উপর হামলা, মারপিট এবং স্বামীর নিবাস ঘরটি ভাংচুর করে।


বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বহরপুর ইউনিয়ন শাখার সভাপতি রোমানা কবির জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যান এবং সাবিত্রীকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং নিরাপদ দুরবর্তি এলাকায় তাকে রেখে আসেন। তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান ও বিচার দাবী করেন। তিনি আরো বলেন, একজন অসহায় বৃদ্ধাকে এভাবে মারপিট করে স্বামীর ভিটা থেকে বের করে দেয়াটা অন্যায়।
সরিক রবি দত্তের ছেলে রাজু দত্ত জানান, সাবিত্রী ওই বাড়ীর মধ্যে জমি পাবেন। তবে যেখানে তাদের ঘর রয়েছে সেই জায়গাটা তাদের। তবে তারা সাবিত্রীকে মারপিট করেন নি এবং তার ঘরও ভাঙ্গেন নি। ঘর বাতাসে পরে গেছে।

(Visited 86 times, 1 visits today)