মাগুরার দুই বৃদ্ধকে রাজবাড়ীতে আটকে রেখে মুক্তিপন দাবী –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

মাগুরা থেকে থেকে রাজধানী ঢাকা যাবার পথে অপহরণ করা দুই জন বৃদ্ধকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। বৃদ্ধ দ্বয়কে অপহরণের পর তাদের কাছে তিন লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অপহৃতরা হলো, মাগুরা জেলার শ্রীপুর গ্রামের মৃত গহের কাজীর ছেলে দাউদ কাজী (৭৫) এবং একই জেলার ছোট পাডিয়া গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে আকরাম হোসেন (৬০)।


শুক্রবার দুপুরে অপহৃত দাউদ কাজীর ছেলে ও ঢাকা কলেজের মাস্টার্সের ছাত্র আব্দুল আহাদ কাজী বলেন, তার বাবা ও তার বাবার বন্ধু আকরাম হোসেন গত বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। তারা রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় পৌছলে কতিপয় ব্যক্তির সাথে তাদের পরিচয় হয়। তাদের কথার এক পর্যায়ে ওই ব্যক্তিরা সুকৌশলে ওই দুই বৃদ্ধকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ ইউনিয়নের ঘিমোরা গ্রামে নিয়ে আসে। একই সাথে তাদেরকে একটি বাগানে বেঁধে রাখে। পরবর্তীতে তাকে (কলেজ ছাত্র আব্দুল আহাদ কাজী) মোবাইল ফোনে তার বাবা ও বাবার বন্ধুকে মুক্তিপন বাবদ তিন লাখ টাকা দাবী করেন এবং বিকাশে পাঠানে বলেন। এ ঘটনার পর তিনি রাজবাড়ী থানায় আসেন এবং তা থানা পুলিশকে অবহিত করেন।


রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, রাত ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার বাণিবহ ইউনিয়নের ঘিমোরা গ্রামের একটি বাগান থেকে বেঁধে রাখা অবস্থায় ওই দুই জন বৃদ্ধকে উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো বলেন, মূলত বৃটিশ আমলের তামার পয়শা সংগ্রহ করা এবং অর্থ লেনদেনের ঘটনা নিয়ে এই অপহরণের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় অপহৃত দাউদ কাজীর ছেলে আব্দুল আহাদ কাজী বাদী হয়ে সদর উপজেলার বাণিবহ ইউনিয়নের ঘিমোরা গ্রামের হাসেম মোল্লার ছেলে মনির মোল্লা ও লিটন মোল্লাকে আসামি করে একটি রাজবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

(Visited 279 times, 1 visits today)