বালিয়াকান্দিতে বাড়ী-দোকানে হামলা- ভাংচুর মামলায় ৬ জন গ্রেপ্তার –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের চষাবিলা গ্রামে দুই আওয়ামীলীগ নেতার প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় হামলা, বাড়ী-ঘর ভাংচুর, লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। ওই পাল্টাপাল্টি মামলায় পুলিশ চষাবিলা গ্রামের ইলিয়াছ মন্ডল, ইসলাম জোয়াদ্দার, তাজমু মন্ডল, ইউসুফ জোয়াদ্দার এবং মাসুদ মোল্লা ও হান্নান মন্ডলসহ ৬জনকে গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী আদালতে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।


জানাগেছে, পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল বারেক বিশ্বাস ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হাই মন্ডল এবং সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নজরুল ইসলাম মৌলিক গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে আসছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রবিবার রাতে মজনু মোল্লা ও সিদ্দিকুর রহমানের বসত বাড়িতে হামলা চালায়। এ ব্যাপারে মজনু মোল্লা বাদী হয়ে ১০জনকে আসামী করে গত সোমবার (২৬ এপ্রিল) বালিয়াকান্দি থানায় অভিযোগ মামলা দায়ের করেন। গত মঙ্গলবার রাতে পুলিশ আসার কথা শুনে লোকজন বাড়ীতে না থাকার সুযোগে হাই মন্ডল ও নজরুলের লোকজন হামলা চালিয়ে জাহাঙ্গীর মন্ডল, হানেফ মন্ডল, মান্নান শেখ, ছানা শেখ, বাবু শেখ, সাবু শেখ, তুহিন শেখ, মিরাজ শেখ, সোবহান, সাবু মন্ডল, আইদুল খান, ডাবলু খান, কামাল খান, রবি খান, যদু খান, কুদ্দুস মোল্যা, লাল মিয়া মোল্যা, হাই মন্ডল, টুকুর মন্ডল, সাচ্চু মন্ডল, জহুরুল জোয়াদ্দারের বাড়ীর টিনের ঘর, লোকমান জোয়াদ্দারের মুদি ও ভ্যারাইটিজ ষ্টোর দোকান, সোবহান জোয়াদ্দারের চায়ের দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করে নিয়ে গেছে। এতে ২৭টি বসত ঘরের ক্ষতি সাধন করেছেন। এ ব্যাপারে লোকমান জোয়াদ্দার বাদী হয়ে বুধবার রাতে মামলা দায়ের করেছে।


বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান বলেন, এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। হামলা ভাংচুরের দায়ের দু’টি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলায় ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যান্যে আসামী গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যহত রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদেরকে বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী আদালতে পাঠানো হয়েছে।

(Visited 69 times, 1 visits today)