দৌলতদিয়া ঘাটে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সাড়ি –

শামীম শেখ, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

১৪ এপ্রিল বুধবার হতে কঠোর লকডাউন ঘোষণার খবরে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দিয়ে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মানুষের ভিড় অব্যাহত রয়েছে। এ রুটের ফেরিগুলোতে ফেরিতে গাদাগাদি করে নদী পাড় হচ্ছে সাধারণ মানুষ । মহামারি করোনা ঝুঁকি উপেক্ষা করেই বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার মানুষ তাদের নিজ নিজ গন্তব্যে ছুটছেন। দূর পাল্লাগামী পরিবহন না চলাচল করায় পদ্মানদী পাড়ি দিয়ে মানুষ থ্রি হুইলার মাহিন্দ্র, অটোরিকশা, মাইক্রোবাস সহ মোটরসাইকেলে করে গন্তব্যে যাচ্ছেন।

সরজমিনে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে গিয়ে দেখা যায়, পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতে যানবাহনের সাথে মানুষের গাদাগাদি চাপ। দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে পণ্যবাহী ট্রাক পারাপারের জন্য দীর্ঘ সময় লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে অল্প সময়ের মধ্যে মাইক্রো, প্রাইভেটকার সহ ছোট গাড়ি গুলো ফেরিতে ওঠার সুযোগ পাচ্ছে।তবে পণ্যবাহী গাড়িগুলোকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে।লকডাউন ঘোষণার কারনে দক্ষিনাঞ্চল হতে পন্যবোঝাই বহু যানবাহন রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্হানে যেতে ঘাটে এসে আটকা পড়ছে। গত ২-৩ দিনে অতিরিক্ত পণ্যবাহী ট্রাক ও ব্যাক্তিগত গাড়ির চাপ থাকায় যানবাহনের দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে। যশোর থেকে আসা কাঠ বোঝাই গাড়িচালক ইয়াছিন মিয়া বলেন, সোমবার সকালে রওনা করে দুপুরে গোয়ালন্দ মোড়ে পৌঁছালে পুলিশ আটকে দেয়। সারা রাত গোয়ালন্দ মোড়ে আটকে থাকার পর আজ মঙ্গলবার সকালে দৌলতদিয়া ঘাটের জন্য ছেড়ে দেয়। এখানে এসেও দীর্ঘ সময় নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। ঢাকা থেকে আসা মাদারীপুর গামী এক যাত্রী শিহাব মাহমুদ বলেন, আমি একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকরি করি। সেটা আজ থেকে লকডাউনের কারনে বন্ধ থাকায় বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। গাবতলী থেকে ভেঙ্গে ভেঙ্গে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে পাটুরিয়া পর্যন্ত এসে ফেরিতে নদী পার হয়েছি। দূরপাল্লার কোন পরিবহন চলছে না। জানিনা কিভাবে বাড়িতে পৌছাবো।

(বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (এজিএম) ফিরোজ শেখ বলেন, ১৪ এপ্রিল লকডাউন ঘোষণায় শহর থেকে মানুষ গাদাগাদি করে তাদের গন্তব্যে ছুটছেন। অন্যান্য দিন সকালে যানবাহনের চাপ তেমন না থাকায় ফেরিও কম চলেছে। অথচ বিগত ২-৩ ধরে যানবাহনের চাপও অনেক বেড়ে গেছে। এখন পর্যন্ত যানবাহনের চাপ না কমায় রুটের সবকটি ফেরি চালু রয়েছে। বর্তমানে এই নৌরুটে ১০ টি বড় ফেরি ও ৭ টি ছোট ফেরি যানবাহন পারাপার করছে।

(Visited 25 times, 1 visits today)