সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের গণতন্ত্রের চর্চা, গোয়ালন্দে শিশুদের জমজমাট নির্বাচন –

আজু সিকদার, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় বুধবার বড়দের আদলে ছোটদের জমজমাট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন প্রণীত সকল বিধিবিধান গুরুত্ব সহকারে অনুসরন করা হয়।


দৌলতদিয়া যৌনপল্লী ও পাশ্ববর্তী এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সমন্বয়ে গঠিত ‘চাইল্ড কাবের’ নেতৃত্ব নির্বাচনের জন্য বরাবরের ন্যায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।নির্বাচনে মোট ৬৩৩ জন শিশু গোপন ব্যালটের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে।
চাইল্ড কাব সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সাল হতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লী ও এর পাশ্ববর্তী এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মতায়নের মাধ্যমে অধিকার নিশ্চিত করা এবং তাদের সুষ্ঠু বিকাশের ল্য চাইল্ড কাব নানামুখী কাজ করছে।
যৌনপল্লীর নারী ও শিশুদের জন্য কাজ করা সংগঠন মুক্তি মহিলা সমিতি ‘চাইল্ড কাবের’ এ কাজে সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে আসছে। এ কাজের অংশ হিসেবে শিশুদের মধ্যে গনতন্ত্রের চর্চা ও নেতৃত্বদানে শিশুকাল হতেই সম করে গড়ে তোলার লে প্রতিবছর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।নির্বাচন উপলে গত কয়েকদিন ধরে যৌনপল্লী এলাকার শিশুদের মধ্যে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।


মুক্তিমহিলা সমিতির নির্বাহী পরিচালক মর্জিনা বেগম জানান, এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক মুহাম্মদ সহিদুল ইসলাম। এছাড়া নির্বাচন পরিচালনার জন্য এলাকার শিতি ও অভিজ্ঞরা অন্যান্য দায়িত্ব পালন করেন। নির্বাচনে তফসিল ঘোষনা হতে ভোটগ্রহন পর্যন্ত সকলেে ত্র নির্বাচন কমিশনের বিধিবিধান যথাযথভাবে অনুসরন করা হয়। নির্বাচনে চেয়ারম্যান -সেক্রেটারিসহ মোট ৯ টি পদে ২৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।


বুধবার সকাল ১০ টা হতে বেলা ২ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। পরে সবাই একসাথে মিলে দুপুরের খাবার গ্রহন করে। নির্বাচনে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও যার যার মতো প্রচার-প্রচারণা চালালেও সেটা ছিল পুরোপুরি উৎসবের মেজাজে।
চাইল্ড কাবের সাবেক চেয়ারম্যান ও নির্বাচনে পোলিং এজেন্টের দায়িত্ত্ব পালনকারী কলেজ পড়ুয়া শিার্থী বাদশা মিয়া জানায়, আমি শুরু হতেই চাইল্ড কাবের সাথে যুক্ত। এ কাব আমাকে শিশুকাল হতেই জীবনমুখী বহু শিা দিয়েছে। যা আমার ভবিষ্যৎ পথ চলায় সহযোগিতা করবে।
নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবলী আক্তার ও ঝুমুর আক্তার জানায়, চাইল্ড কাব তাদের শিা, সুরা, সুস্বাস্থ্য, গনতন্ত্র চর্চাসহ নানা অধিকার বিষয়ে সজাগ করেছে। আমরা এখান থেকে অনেক কিছু শিখতে পারছি। নির্বাচনের লাফল


যাই হোক আমরা মিলেমিশে সবাই এখানতার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য কাজ করবো। দুপরে প্রধান অতিথি হিসেবে নির্বাচন কার্যক্রম পরিদর্শনে আসেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা মুন্সিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের অতিথিবৃন্দ।
উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা মুন্সি তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এখানে এসে আমি অভিভূত। শিশুদের নেতৃত্ব বিকাশ ও গনতন্ত্রের চর্চার জন্য এই নির্বাচন তাদের ভবিষ্যৎ পাথেয় হয়ে থাকবে।এতো সুন্দর আয়োজনের জন্য আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সেইসাথে এখানে এসে যে বৈষম্য ও শোষণের কথা শুনলাম সেটা দূর করতে সকলকে সাথে নিয়ে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাবো।

(Visited 28 times, 1 visits today)