পাংশার দীপেন ডাক্তার গুনলো লাখ টাকা জরিমানা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

শিশুদের ডাবল ডোজে এন্টিবায়োটিক দেয়ার অভিযোগে রাজবাড়ীর পাংশা ষ্টেশন এলাকার হাতুড়ে চিকিৎসক দীপেন্দ্রনাথ দাসকে ভ্রাম্যমান আদালতে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার দুপুরে ওই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন, রাজবাড়ীর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আরিফুজ্জামান।


জানাগেছে, শিশুদেরকে ডাবল ডোজে এন্টিবায়োটিক দেন তিনি, কয়েক মাসের প্রশিক্ষণ নিয়ে নামের আগে ডা. লেখেন এই দীপেন ডাক্তার (!!!) তার প্রতি প্রেস্ক্রিপশনে এন্টিবায়োটিক লিখে দেন তাও আবার উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন। গ্রামের সহজ সরল রোগীকে পেয়েই উচ্চ ক্ষমতার এন্টিবায়োটিক প্রয়োগ করার ফলে ১/২ দিনেই রোগের লক্ষণ কমতে থাকে, ফলে ব্যাপক জনপ্রিয় হয় এই সকল হাতুড়ে ডাক্তার। কিন্তু ফুল ডোজ শেষ না করলে এন্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্স রোগীর সারাজীবনের জন্য ক্ষতি হয়ে যায় তা হয়ত এই সকল ডাক্তাররা জানেও না, জানলেও লাভের আশায় হরদম এন্টিবায়োটিক লেখে।

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলায় এমন এক দীপেন্দ্রনাথ দাস ডাক্তারকে মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৯ (১) ধারার অপরাধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযানে সহায়তা করেন পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর এক মেডিকেল অফিসার ও র‌্যাব ৮ ফরিদপুরের এক টিম। রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগমের নির্দেশনায় ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুনের তত্ত্বাবধানে জনস্বার্থে এমন মোবাইল কোর্ট অব্যাহত থাকবে।

(Visited 829 times, 1 visits today)