পাংশার হাতুড়ি বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড রিপন অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার, পালিয়েছে জনি –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : 

রাজবাড়ীর পাংশা থেকে হাতুড়ি বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড মিজানুর রহমান রিপন (৩০) কে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও পাংশা থানা পুলিশের সদস্যরা আগ্নেয়াস্ত্র, ধারালো অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে। রিপন পাংশা পৌরসভার কুড়াপাড়া গ্রামের আওয়াল হোসেনের ছেলে। তবে হাতুড়ি বাহিনীর প্রধান মনোয়ার হোসেন জনি পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে।


রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি ওমর শরীফ এবং পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত সোমবার রাত ১২টার পর হাতুড়ি বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড মিজানুর রহমান রিপনের বাড়ীতে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও পাংশা থানা পুলিশের সদস্যরা যৌথ ভাবে অভিযান পরিচালনা করে। পরবর্তীতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর মঙ্গলবার ভোরে রিপনের শয়ন কক্ষ থেকে একটা পাসলার চোরাই মোটরসাইকেল, ১টা ওয়ান সুটার গান, ২টা পিস্তলের গুলি, ২টা বন্দুকের গুলি, চার টা চাপাতি ও ১টা হাতুড়ি উদ্ধার করা হয়। সেই সাথে হাতুড়ি বাহিনীর প্রধান মনোয়ার হোসেন জনি (৩৩) কে গ্রেপ্তার করতে অভিযান চালানো হলেও সে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। জনি পাংশার নারায়নপুরের খলিল ড্রাইভারের ছেলে।

পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন বলেন, রিপনের বিরুদ্ধে ১টা ডাকাতি ও ২টা মারামারি এবং জনির বিরুদ্ধে ১টি চাঁদাবাজী মামলা রয়েছে।

এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই মোজাম্মেল বাদী হয়ে মিজানুর রহমান রিপন ও মনোয়ার হোসেন জনির বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে পাংশা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

(Visited 4,453 times, 4 visits today)