চৈতির উদ্যোগে রাজবাড়ীর বানভাসি ৩ চরের বাসিন্দাদের “ঈদ উপহার” দিলো শুভসংঘ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে বেড়েছে পদ্মা নদীর পানি। তাতে করে বানভাসিরা পড়েছেন নিদারুন কষ্টে। করছেন তারা মানবেতর জীবন-যাপন। এমনি অবস্থা রাজবাড়ীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের বাইরে পদ্মা নদীর মাঝে জেগে উঠা সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত কাঠুরিয়া, চর আমবাড়িয়া ও মৌকুড়ি এবং গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের বেতকা গ্রামের শতাধিক পরিবারের। পানি বন্দি ওই মানুষদের মাঝে নেই ঈদুল আযহার আনন্দ। বিষয়টি অনুধাবন করেছেন, সাবেক শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী ও রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলীর একমাত্র সন্তান কনিজ ফাতেমা চৈতী। তিনি দৈনিক কালের কণ্ঠ শুভসংঘ রাজবাড়ী জেলা শাখার সহযোগিতায় শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ট্রলার যোগে মাঝ পদ্মার চরে বসবাসরত বাসিন্দাদের হাতে পৌছে দিয়েছেন, নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী।


এ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক কালের কণ্ঠ শুভসংঘ রাজবাড়ী জেলা শাখার সহ-সভাপতি ও বরাট-ভাকলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শম্পা প্রমাণিক, সাধারণ সম্পাদক ও রাজবাড়ী সরকারী আদর্শ মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক আব্দুর রশিদ মন্ডল, সহ-সাধারণ সম্পাদক ও শেরে বাংলা বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হাফিজুর রহমান, মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশন রাজবাড়ী শাখার সভাপতি, বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত অভিনেত্রী, মঞ্চ ও আবৃত্তি শিল্পী আজরা জেবিন তুলি, মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশন রাজবাড়ী শাখার কোষাধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃধা ওয়াজেদ আলী, দৈনিক কালের কণ্ঠের রাজবাড়ী প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর হোসেন, মিজানপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুর রশিদ মনি, কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট মোজাহার আলী মোল্লা প্রমুখ।


মিজানপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুর রশিদ মনি বলেন, প্রায় একমাস ধরে পানি বন্দি এই সকল চরের বাসিন্ধারা। প্রায় প্রতিটি বাড়ীর চারপাশে পানি আর পানি। সরকারী ভাবে ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করা সম্ভব হলেও তা সকল পরিবারকে দেয়া সম্ভব হয়নি। যে কারণে মানবেতর জীবন-যাপন করছে তারা। ঈদ আনন্দও ছিলো তাদের মনে। এমনি অবস্থায় এমপি কন্যা চৈতি এগিয়ে এসেছেন এবং ওই এলাকা গুলোর প্রত্যেক পরিবারের হাতে খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ তুলে দিয়েছেন।

ফেসবুক থেকে এ ভিডিওটি দেখা না গেলে TV Rajbari লিখে ইউটিউবে সার্চ দিলেও দেখা যাবে।

(Visited 116 times, 1 visits today)