রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পয়েন্টে পদ্মার পানি বিপদ সীমার ওপরে, নিম্নাঞ্চল প্লাবিত –

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীতে গত সপ্তাহে পদ্মার পানি কমলেও আজ দু’ তিন দিন আবার পদ্মার পানি বাড়তে শুরু করেছে। ২৪ ঘন্টায় পদ্মায় পানি বেড়েছে ১৩ সেঃমিঃ। গতকাল রবিবার পদ্মার পানি বিপদ সীমার ১০ সেঃমিঃ নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও আজ সোমবার ১৩ সেঃমিঃ বেড়ে বিপদ সীমার ৪ সেঃমিঃ উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গত কালের চাইতে পদ্মায় আজ পানি বেড়েছে ১৩ সেঃ মিঃ বেশি। সোমবার গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া গেজ ষ্টেশনে ৮.৬৮ পয়েন্ট অর্থাৎ বিপদ সিমার ৪ সেঃমি ঃ উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। উজান থেকে আসা এবং অতি বৃষ্টির কারনেও পদ্মার পানি বেড়ে নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে। কিছু কিছু স্থানে দেখা দিয়েছে নদী ভাঙ্গনও।


নতুন করে আবার পানি বাড়তে থাকায় পদ্মার নি¤œাঞ্চল ফের প্লাবিত হতে শুরু করেছে। এর ফলে পাংশা ,কালুখালী, সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার, হাবাসপুর, বাহাদুরপুর, রতনদিয়া, কালিকাপুর, খানগঞ্জ, চন্দনী, মিজানপুর, বরাট, ছোটভাকলা, দেবগ্রাম ও দৌলতদিয়া সহ এ ১১ টি ইউনিয়নের প্রায় ২০ থেকে ২৫ টি এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে মাছ চাষের ঘের তলিয়ে গেছে, ফসলী জমি ও বাড়ি ঘরের আঙ্গিনায় পানি আসতে শুরু করেছে।


ফসলী জমিতে আবার পানি ওঠায় তারা এখন নতুন করে ফসল ও মাছের ঘের নিয়ে পরেছেন বিপাকে। পরেছেন গবাদি পশুর খাবার সংকটে। সবখানে পানি ওঠায় তারা ক্ষেত থেকে গবাদি পশুর খাবারের যোগান দিতে পারছেন না। চারিদিকে পানিতে তলিয়ে যাওয়ার কারনে কাজ না থাকায় ঘরে বষে থাকতে হচ্ছে প্লাবিত মানুষদের। তাদের এখন কোন কাজ নেই,অলস সময় পার করছেন তারা। আয় না থাকায় কষ্টে চলছে তাদের পরিবার।


পানি নেমে যাওয়ার কারনে যে টুকু ফসল পাওয়ার আশা করেছিলেন ফের পানি বাড়তে শুরু করায় বাকি ফসল টুকু আর ঘরে তুলতে না পারার আশঙ্কা করছেন কৃষকেরা। মাছের ঘের তলিয়ে মাছ বেড় হয়ে যাওয়ায় লোকসানের মুখে পরেছেন মাছ চাষিরা। সামনের দিন গুলোতে পানিবন্দি এসকল মানুষ কিভাবে তাদের সংসার চালাবেন তা নিয়ে পরেছেন দুঃশ্চিন্তায়। তবে সরকারের পক্ষ থেকে নদী তীরবর্তী অঞ্চলের পানিবন্দি মানুষ এখনও পর্যন্ত কোন ধরনের সাহাজ্য সহযোগীতা পাননি বলে অভিযোগ করেন।

(Visited 97 times, 1 visits today)