এসপির নির্দেশে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার বালিয়াকান্দির স্কুল ছাত্রী গণধর্ষণ মামলার ৬ আসামী-

সোহেল রানা, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম- এর নির্দেশে ২৪ ঘন্টা পার না হতেই স্কুল ছাত্রী গণধর্ষণ মামলার ৬ জন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছেন বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ।


নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া মেয়েকে গণধর্ষণের অভিযোগে মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে বালিয়াকান্দি থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেন। এজাহার আমলে নিয়ে মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব নেন বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ কে এম আজমল হুদা। তাৎক্ষনিক বিভিন্ন এলাকায় সোর্স লাগিয়ে রাত না পার না হতেই বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে ৬ আসামীকেই গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন তিনি।
শুক্রবার (২৬জুন) দুপুরে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ কে এম আজমল হুদা।


আটকৃতরা হল, বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের বারুগ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আল আমিন মন্ডল (১৬), মৃত আমোদ আলী শেখের ছেলে রনি শেখ (২৫), জাহিদ আলী ব্যাপারির ছেলে মহিউদ্দিন ব্যাপারী (১৬), নতুনচর গ্রামের নজরুল খানের ছেলে নাহিদ খান (১৮), আশ্চার্য্যপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে নিরু শেখ (২৫) ও আজিজুল ব্যাপারীর ছেলে রুবেল ব্যাপারি (২৫)।


থানা সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৩ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে আসামীরা ওই স্কুল ছাত্রীর বাড়ী থেকে অপহরণ করে নিয়ে পাশ্ববর্তী বহরপুর ইউনিয়নের বিলটাকিগাড়া নামক স্থানে নিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। অজ্ঞান অবস্থায় তাকে বাড়ীর পাশে পুকুর চালায় ফেলে রেখে যায়। তারই প্রেক্ষিতে ওই ছাত্রীর মা বৃহস্পতিবার থানায় ৬জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।


এ কে এম আজমল হুদা বলেন, ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। তাৎক্ষনিক বিভিন্ন জায়গায় সোর্স স্থাপনের মাধ্যমে রাতেই বিশেষ অভিযান পরিচালনা করি। পরে বহরপুর এলাকার বিভিন্ন জায়গা থেকে সকল আসামীকে গ্রেপ্তারে সক্ষম হই।

(Visited 621 times, 1 visits today)