রাজবাড়ী জেলা পুলিশের অনন্য নজির – “২০ ব্যক্তি পেলেন চুরি ও ছিনতাই হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন” –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

দেশের দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে চুরি ও ছিনতাই হওয়া অধিক মূল্যের ২০ মোবাইল ফোন উদ্ধারের পর মালিককে সনাক্ত করা এবং তাদের ডেকে এনে সে সব মোবাইল ফোন হাতে তুলে দেয়ার এক অনন্য নজীর সৃষ্টি করেছে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে আনুষ্ঠানিক ভাবে মালিকদের হাতে মোবাইল ফোন গুলো তুলে দেন, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম।
সে সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ (সদর) মোঃ ফজলুল করিম। ডিআইও ওয়ান সাইদুর রহমান, রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি ওমর শরীফ, পুলিশ পরিদর্শক জিয়ারুল ইসলামসহ অন্যান্য।


যারা মোবাইল ফোন ফিরে পেলেন, তারা হলেন, পিরোজপুরের মেহেদী হাসান সোহাগ, মোংলার অসীম কুমার হালদার, খুলনার ফুলতলার সাইম মোয়াজ্জিন, মোংলার অবনি রায়, ঝিনাইদহের মহেশপুরের আল মামুন, যশোরের তরিকুল ইসলাম, বাগেরহাটের রামপালের ধনপতি হালদার, খুলনার পোড়াবুনিয়া গ্রামের প্রশান্ত কুমার, খুলনার খানজাহান আলীর শেখ ফরিদ হোসেন, খুলনার বাটিয়াগাটা গ্রামের সঞ্জয় কুমার, খুলনার পাইকগাছা গ্রামের উজ্জল কুমার মন্ডল, যশোরের মনিরামপুরের কামরুজ্জামান, বাগেরহাটের দিগরাজ গ্রামের বিপ্লব হলদার, বাগেরহাটের ফকিরহাট গ্রামের ভর্গব মন্ডল, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের শরিফুল ইসলাম, বাহেরহাটের রামপালের পার্থ বিশ্বাস, খুলনার রামপালের দীপ সরকার, খুলনার রামপালের সুকান্ত কুমার, যশোরের ইমরান ওরফে হিরা এবং খুলনার দাকোপ গ্রামের গৌরদাস বাওয়ালী।


রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম বলেন, তিনি জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রাজবাড়ী পৌরসভা, ঢাকা-খুলনা মহা-সড়কের সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড় এবং দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার খ্যাত দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় শতাধিক সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেন। ইতোমধ্যেই স্থাপিত এই সব সিসি ক্যামেরার উপকারীতা পেতে শুরু করেছেন রাজবাড়ীসহ দক্ষিণাঞ্চলের বাসিন্দারা। গত ২৫ ফেব্রুয়ারী এক ব্যক্তিকে প্যাকেট নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা দিয়ে রাজধানী ঢাকায় যাবার চেষ্টা করতে দেখা যায়। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে জেলা গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা বিষয়টি লক্ষ করেন। একপর্যায়ে ওই ব্যক্তিকে তারা চ্যালেন্স করেন। সে সময় ওই ব্যক্তি কাছে থাকা প্যাকেট থেকে এই মোবাইল ফোন গুলো উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তারা এই মোবাইল ফোন গুলোর প্রকৃত মালিক সনাক্ত করতে সমর্থ হন। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে তা প্রদান করা সম্ভব হচ্ছিল না। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি খানিকটা শিথিল থাকায় মোবাইল ফোন মালিকদের ডেকে এনে তাদের হাতে তা তুলে দেয়া হয়।

ফেসবুক থেকে এ ভিডিওটি দেখা না গেলে TV Rajbari লিখে ইউটিউবে সার্চ দিলেও দেখা যাবে।

(Visited 522 times, 1 visits today)