রাজবাড়ী জেলা শহরে করোনার উপসর্গ নিয়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু, ২ বাড়ী লকডাউন, ১১ জনের নমুনা সংগ্রহ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী জেলা শহরের বিনোদপুর ভাজনচালায় করোনার উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে অঙ্কন দত্ত (১৪) নামে একজন স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। সে ওই গ্রামের বিপ্লব দত্তের ছেলে। এ ঘটনার পর অঙ্কনের বাড়ীসহ প্রতিবেশি আরেকটি বাড়ী লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। অঙ্কনসহ ওই দুই বাড়ীর ১১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। অঙ্কন রাজবাড়ী অংকুর স্কুল এন্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র ছিলো।


রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গত ১৮ মে জ¦র, কাশি ও ঠান্ডায় আক্রান্ত হয়ে অঙ্কন দত্ত রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র নিয়ে বাড়ী ফিরে যায়। এর পর সে আর হাসপাতালে ফিরে আসেনি। বাড়ীতেই চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছিলো। বৃহস্পতিবার ভোরে তার অবস্থার অবনতি হলে সকাল ৭টার দিকে তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সে সময় হাসপাতালের জরুরী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎক আবুল কালাম আজাদ অঙ্কনকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।


হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট নন্দ দুলাল সরকার জানান, পরবর্তীতে মৃত অঙ্কন দত্তসহ তার বাড়ীর ৬ জন এবং প্রতিবেশি বাড়ীর আরো ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এদিকে বিকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলা এসিল্যান্ড আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে সদর থানার ওসি (তদন্ত) আমিনুল ইসলামের সহযোগিতায় ওই দুই বাড়ী লকডাউন ঘোষনা করেছেন।


রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডাঃ নুরুল ইসলাম জানান, গত বুধবার ৩৫ জনের নমুনার রিপোর্ট তারা হাতে পেয়েছেন। তার মধ্যে রাজবাড়ী জেলা শহরের ধুনচি গ্রামের ১ জন, জেলার কালুখালী উপজেলার সোনাপুরের ১ জন নারী, পাংশা কোরাপাড়া গ্রামের ১ জন এবং পাংশার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের রঘুন্দনপুর গ্রামের একই পরিবারের স্বামী, স্ত্রী ও তাদের ২ মেয়ের করোনা পজেটিভ হয়েছে। রঘুনন্দনপুর গ্রামের ৩০০ বাড়ী ও বাহাদুরপুর বাজারের ২ টি দোকানকে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ১ হাজার ২ শত ৪৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত করোনা পজেটিভ হয়েছে ২৩ জন। এর মধ্যে ১০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন। বর্তমানে রাজবাড়ী হাসপাতালে ৮ জন ও কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২ জন করোনা রোগি চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

(Visited 2,360 times, 1 visits today)