দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ-

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : 

মোবাইল ফোনে পরিচয়ের সূত্রধরে দশম শ্রেণীতে পড়–য়া ছাত্রী (১৪)-এর সাথে এক যুবকের পরিচয় এবং ওই যুবকের সাথে ঘুরতে যাবার পর ছাত্রীটি ধর্ষণের স্বীকার হয়েছে। অসুস্থ্য অবস্থায় ওই ছাত্রীকে রাজবাড়ী সদর ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার ওই ছাত্রীর বোন বাদী হয়ে ৩ জনের নামে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
গতকাল সোমবার দুপুরে হাসপাতালের গাইনী বিভাগে ভর্তি থাকা ওই ছাত্রী জানায়, জেলার গোয়ালন্দের ব্যাপারীপাড়া গ্রামের যুবক নয়ন ওরফে রাজ্জাক (১৮) নামে জনৈক এক যুবকের সাথে তিন মাস আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয় হয় তার। তবে সে নয়নের বাবার নাম জানে না। এর পর তারা নিয়মিত ভাবে কথা বলতো। ওই যুবক আব্দার করে তাকে ঘুরতে নিয়ে যাবে। গত শনিবার সন্ধ্যায় সে বাড়ীর সামনের রাস্তায় আসলে নয়ন একটি মোটরসাইকেল নিয়ে সেখানে আসে এবং তাকে ঘুরতে নিয়ে যায়। তবে ঘুরতে ঘুরতে তাকে যে ফরিদপুরের একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যাবে তা সে বুঝতে পারেনি। ওই দিন রাত ভর তাকে হোটেলের একটি কক্ষে নয়ন ধর্ষণ করে। এতে সে অসুস্থ হয়ে পরে। পর দিন রবিবার বিকালে নয়ন তাকে একই মোটরসাইকেলে বাড়ীর সামনে নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। সে বাড়ী ফিরে আসে। ওই পরিবারের সদস্যরা তাকে হন্য হয়ে খুজছিলো। তাকে পরিবারের লোকজন জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং সে নয়নের সাথে ঘুরতে যাওয়া এবং তাকে ধর্ষণ করার কথা খুলে বলে। বিষয়টি নিয়ে তার পরিবারের সদস্যরা নয়নের সাথে যোগাযোগ করে। তবে নয়ন তাদের জানিয়ে দেয়, সে তাকে (মেয়েটিক) চেনে না। একই দিন রাতে জ¦রসহ শাররীক অন্যান্য সমস্যা বেড়ে গেলে রাত ১টার দিকে তাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
হাসপাতালের গাইনী কনসালটেন্ট নাজনিন সুলতানা বলেন, মেয়েটিকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। সে খানিকটা সুস্থ।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, তিনি মেয়েটির সাথে কথা বলেছেন। থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

(Visited 2,046 times, 1 visits today)