কালুখালীতে রেলওয়ের উচ্ছেদ অভিযানে দখলদারদের বাঁধা, বেকু চালককে মারধর –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

গণ নোটিশ ও মাইকিং-এর পরও উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করতে আসা রেলওয়ের উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে দখলদারদের বাঁধার মুখে পরতে হয়েছে। একই সাথে অভিযানিক দলে সাথে থাকা উচ্ছেদ কাজে ব্যবহৃত বেকু চালককে মারধরও করা হয়েছে। অবশেষে স্থাপনা অপসারণের সময় আরো ১৫ দিন বৃদ্ধি করে চলে যেতে হয়েছে ওই দল কে। আজ সোমবার দুপুরে রাজবাড়ীর কালুখালী রেলষ্টেশন এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে।
রেলওয়ের রাজবাড়ীর কানোনগো সাজ্জাদুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ দিন ধরে অবৈধভাবে কালুখালী রেল ষ্টেশন এলাকায় অর্ধশতাধিক স্থাপনা তৈরী করা হয়েছে। সে সব স্থাপনা সড়িয়ে নিতে ১৫ দিন পূর্বে ওই এলাকায় তারা গণ নোটিশ প্রদান করেন। সেই সাথে এক সপ্তাহ আগে তারা মাইকিংও করেন। তবে তাদের এই নির্দেশনায় কর্নপাত করেন নি অবৈধ দখলদাররা। যে কারণে পূর্ব ঘোষনা অনুযায়ী রেলওয়ে পাকশীর বিভাগীয় এ্যাষ্ট্রেট অফিসার নুরুজ্জামানের নেতৃত্বে তারা আজ সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। সে সময় তারা সাথে নেন উচ্ছেদ কাজে ব্যবহার করতে একটি বেকু। ওই সময় তাদের উপস্থিতি দেখে দখলদার বিক্ষুব্দ হয়ে ওঠে এবং তাদের বাঁধা দেয়। সেই সাথে অতর্কিত ভাবে তারা বেকু চালককে মারধরও করে। পরে কালুখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলিউজ্জামান চৌধুরী টিটোসহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থলে এসে দখলদারদের পক্ষ নিয়ে আগত রেলওয়ে কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটদের সাথে কথা বলেন।
রাজবাড়ীর এনডিসি রফিকুল ইসলাম জানান, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হিসেবে তিনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে রেলওয়ে পাকশীর বিভাগীয় এ্যাষ্ট্রেট অফিসার নুরুজ্জামান সে সময় ১৫ দিনে সময়সীমা বেঁধে দেন। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে দখলদাররা তাদের স্থাপনা ভেঙ্গে নিয়ে যাবে, আর তা না হলে পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে।

(Visited 658 times, 1 visits today)