গোয়ালন্দে ভুয়া প্রশ্নপত্র বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার-

মেহেদী হাসান মাসুদ, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দঘাট থানাধীন রমজান মাতুব্বর পাড়া এলাকায় এইচএসসি পরীক্ষার ভূয়া প্রশ্নপত্র বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এ সময় প্রশ্ন ফাঁসকারী চক্রের এক সদস্যকে আটক করে ফরিদপুর র‌্যাব-৮এর সদস্যরা। এ সময় প্রতারনায় ব্যবহৃত ২টি মোবাইল সেটও জব্দ করা হয়। ভুয়া প্রশ্নপত্র বিক্রি ও প্রচারনার কাজে অনলাইন একাউন্ট খোলেন তিনি।
শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার গোয়ালন্দঘাট রমজান মাতুব্বর পাড়াস্থ জমিদার ব্রীজের নিকটে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। আটক মো. জুয়েল হোসেন (২৫), রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোপীনাথদিয়া (শ্রীপুর বাস টারর্মিনালের পাশে) মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিকি, কহিল উদ্দিন গায়েন এর পুত্র।
সিপিসি-২, ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক মেজর শেখ নাজমুল আরেফিন পরাগ প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান; গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দঘাট থানাধীন রমজান মাতুব্বর পাড়া এলাকায় যান। সেখানে এইচএসসি পরীক্ষার ভূয়া প্রশ্নপত্র ফাঁসকারী চক্রের এই সদস্য এইচএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে প্রতারনা মূলক কার্যক্রম চালাচ্ছিলো।
উক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাই করে ওই ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল অভিযান পরিচালনা করে এইচএসসি পরীক্ষার ভূয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস ও বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার ভূয়া রেজাল্ট পরিবর্তনকারী প্রতারক চক্রের ১ জন সক্রিয় সদস্যকে আটক করে। এ সময় ধৃত ব্যক্তির নিকট থেকে প্রতারনার কাজে ব্যবহৃত ২টি মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।
অভিযুক্ত মোঃ জুয়েল হোসেন একজন দক্ষ মোবাইল টেকনিশিয়ান। সে অতিরিক্ত অর্থের বিনিময়ে মোবাইলের সিমকার্ড ভূয়া নামে রেজিস্ট্রেশন করে অন্য নামে একটা ভূয়া ফেসবুক এ্যাকাউন্ট খুলে প্রতারনার উদ্দেশ্যে নিজেই এইচএসসি পরীক্ষাসহ বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ও পাবলিক পরীক্ষার রেজাল্ট অর্থের বিনিময়ে অসদুপায় অবলম্বন করে সরবরাহ এবং পরিবর্তন করার নিমিত্তে অনলাইন ভিত্তিক বেশ কয়েকটি ফেসবুক গ্রুপে প্রচারনা চালায়। এছাড়াও জুয়েল হোসেন প্রশ্নপত্র সরবরাহের কথা বলে নিজের রকেট একাউন্টে বিপুল অর্থও হাতিয়ে নিয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।
এই কর্মকর্তা আরও জানান, আটককৃত মোঃ জুয়েল হোসেন বিগত এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত অপরাধের জন্য চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারী র‌্যাবের হাতে আটক হয় এবং তার বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা নং- ১৫, তারিখ-০৮/০২/২০১৯ খ্রিঃ, ধারা- পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) আইন ১৯৮০ এর ৪২ বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।
আটককৃত ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে যে, সে উক্ত প্রতারনার সাথে জড়িত। আটককৃত ব্যক্তিকে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দঘাট থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলছে।

(Visited 173 times, 1 visits today)