শহীদওহাবপুরে অজ্ঞান পাটির কবলে পড়ে একই পরিবারের ৪ জন অসুস্থ্য

আল আমিন :

রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের নিমতলা গ্রামে সোমবার সন্ধ্যায় অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে একই পরিবারের ৪ জন অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে। অসুস্থরা হলেন,্ বাড়ির মালিক তোরাপ আলী (৫৫), তার স্ত্রী মোমেনা বেগম (৪৫), মেয়ে চামেলী (১৫) ও নাতনী শান্তা খাতুন (১৩)। মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে গুরুত্বর অবস্থায় তাদেরকে ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যায় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা নিজেদেরকে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে কৃষক তোরাপের বাড়িতে প্রবেশ করে। এসময় তার স্ত্রীর অসুস্থতার কথা বলে ঐ বাড়িতে আশ্রয় নেয়। গৃহকর্তার মেয়ে স্কুল ছাত্রী চামেলীকে ভাল ছেলের সাথে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। রাতে খাওয়ার আয়োজন করা হয়। খাবারের পুর্বে কোন এক সুযোগে খাবারের সাথে তরল চেতনা নাশক দ্রব্য মিশিয়ে দেয় দুরবৃত্তরা। খাওয়ার পর বাড়ির ৪জন অসুস্থ হয়ে পড়লে দুরবৃত্তরা বাড়ির নগদ টাকা, স্বর্ণ অলংকার, মোবাইল প্রভৃতি লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।
এলাকাবাসী আবুল কাশেম বিশ্বাস জানান, মঙ্গলবার সকালে একই এলাকার বাড়ি সিরাজ মন্ডলের স্ত্রী নাসিমা বেগম (ভাগ্নি) চিৎকারে ঐ বাড়িতে দৌড়ে আসি। এসে দেখি তোরাপ আলী ও তার মেয়ে বারান্দায় এবং তার স্ত্রী ও নাতনী ঘরের মধ্যে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে আছে। ঘটনাস্থল থেকে মাম পানির বোতল, কাচের গ্লাসে বড় সজ মিশ্রিত সরবত,পাওয়া যায়। পরবর্তিতে তোরাপ আলীর ভাতিজা মোঃ হাসমত মোল্লার সাথে কথা বলে জানা যায়, তার চাচা-চাচি, স্কুল ছাত্রী ২ বোন ফরিদপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি আরো বলেন, চামেলী ৮ম শ্রেণী ও শান্তা খাতুন ৭ম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী। পারিবারিক ভাবে জানা গেছে, তোরাপ আলী ও তার স্ত্রী মোমেনা বেগম এর অবস্থা আশংকা জনক।

(Visited 33 times, 1 visits today)