কেন্দ্রীয় পরিবহণ শ্রমিক নেতা কুদ্দুস খানকে পিটিয়ে জখম

নিজস্ব প্রতিবেদক :

Rajbari- (1)- 25.11.2014

রাজবাড়ীর জেলা পরিবহণ শ্রমিক ইউয়নের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস খান (৫০) গত মঙ্গলবার সকালে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে। তাকে গুরুতর অবস্থায় রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
হাসপাতলে চিকিৎসাধিন ওই শ্রমিক নেতা জানান, তিনি জেলা শহরের ভবানীপুর এলাকার ঝুমুর হোসেনের ছেলে ও জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন তোকাইয়ের বিভিন্ন অনৈতিক কাজের বাঁধা দেয়। গত সোমবার সে ক্ষিপ্ত হয়ে মুরগীর ফার্ম এলাকায় উচ্চশ্বরে তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী’কে নিয়ে বাজে কথা বলে। এরই প্রতিবাদে তার ছোট ভাই মজিদ ড্রাইভার তোকাইকে গত মঙ্গলবার সকালে জেলা শহরের মুরগীর ফার্ম এলাকায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে গেলে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ সময় তিনি তা প্রতিরোধ করতে গেছে তোকাইয়ের ছোট ভাই আক্তার ড্রাইভার (৩০) পেছন থেকে কাঠের বাটাম দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এতে তার মাথার বেশ কিছু অংশ কেটে যায়। তকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি আরো বলেন, সামনে পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন হবে। যাতে আমি নির্বাচনে অংশ নিতে না পারি সে জন্যই আমাকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে আমার ধারনা।
হাসপাতালে কুদ্দুস খানকে দেখতে আসা লোকজন ওই হামলার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সে সময় আব্দুল আজিজ ড্রাইভার বলেন, তোকাইদের অত্যাচারে তারা অতিষ্ঠ। কেউ এর প্রতিবাদ করার সাহস দেখায় না। কুদ্দুস খান তাদের এই অপকর্মের প্রতিবাদ করতে গিয়ে হামলার শিকার হায়েছেন।
রাজবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) জহুরুল ইসলাম বলেন, ওই ঘটনার পর পরই থানা পুলিশের সদসস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় গতকাল বিকাল পর্যন্ত থানায় কোন মামলাও দায়ের করা হয়নি।

(Visited 14 times, 1 visits today)