পাংশায় দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ২৫

নিজস্ব প্রতিবেদক :

গত শুক্রবার বিকেলে গ্রাম্য সালিশে রাজবাড়ীর পাংশার হাবাসপুর ইউপির চরআফড়া ও কালুখালীর কালিকাপুর ইউপির রায়নগর দুই গ্রামবাসী চরআফড়া স্লুইজগেট বাজারে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে।
পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ আবুল বাশার মিয়া জানান, উভয় পক্ষের কয়েক শ’ লোকজনের লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে পরস্পর মারমুখী উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৪৭ রাউন্ড সর্টগানের ফাঁকা ফায়ার করা হয়। ওই ঘটনায় ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। শনিবার বিকালে রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার তাপতুন নাসরীনসহ জেলা পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে বিকাল পর্যন্ত থানায় কোন মামলা দায়ের হয়নি।
জানাগেছে, গত ৮ অক্টোবর কালুখালী উপজেলার কালিকাপুর ইউপির গোপালপুর গ্রাম ও পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউপির চরআফড়া গাংদিয়ার পাড়া যুবকদের মধ্যে জাফরপুর মাঠে প্রীতি ফুটবল খেলায় গোলযোগ হয়। ওই গোলযোগ মীমাংসা করতে গতকাল শুক্রবার বিকালে কালুখালী ও পাংশার সীমান্তবর্তী রায়নগর সিনিয়র মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে সালিশি বৈঠক বসে। কালুখালীর কালিকাপুর ইউপির চেয়ারম্যান আতিউর রহমান নবাবের সভাপতিত্বে সালিশি বৈঠকে ২৫-৩০ জন সালিশদারসহ প্রায় ২শতাধিক লোকজন সালিশি বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের শেষ পর্যায়ে চরআফড়া ও রায়নগর দু’গ্রামবাসী লোকজনের মাঝে ছড়িয়ে পরে সংঘর্ষ। সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়। সেই সাথে স্লুইগেট বাজারের কয়েকটি দোকান ভাংচুর করা হয়
খবর পেয়ে রাতেই রাজবাড়ীর এনডিসি মোঃ জামিরুল ইসলাম, পাংশা উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ফরিদ হাসান ওদুদ, পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান ও কালুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

(Visited 32 times, 1 visits today)