রাজবাড়ীর ৫ পরিবহণ মালিক কারাগারে, প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

=ed-1

অভ্যন্তরিন কোন্দলের জের ধরে রাজবাড়ী জেলা পরিবহণ মালিক গ্রুপের কর্মকর্তাদের দুই অংশ থানায় পাল্টা-পাল্টি মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলায় গত মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত জেলা পরিবহণ মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ও ৩ জন কর্মকর্তাসহ ৫ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। এর প্রতিবাদে তাৎক্ষণিক সড়ক পরিবহণ মালিক ও শ্রমিকরা রাজবাড়ী-ফরিদপুর, রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া ও রাজবাড়ী-বালিয়াকান্দি সড়ক অবরোধ করে।
জানাগেছে, রাজবাড়ী জেলা পরিবহণ মালিক গ্রুপের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ২০১৩ সালে ৬ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হয়। এ কমিটির মেয়াদ আগামী বছরের ২৫ জানুয়ারী শেষ হবে। যে কারণে ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে আগামী নির্বাচনের তোড়জোর। ওই নির্বাচনকে সামনে রেখে ও জেলার বিভিন্ন রুটে বাস চলাচলের প্রতিবন্ধকতা নিয়ে প্রকাশ্য দ্বন্দে জড়িয়ে পরেছে, সংগঠনের সভাপতি রনজিৎ সরকার টিটু এবং সাধারণ সম্পাদক সুকুমার ভৌমিকের গ্রুপ।
সাধারণ সম্পাদক সুকুমার ভৌমিক জানান, ওই সব দ্বন্দের জের ধরে গত ৮ অক্টোবর বিকালে সভাপতি রনজিৎ সরকার টিটু’র নেতৃত্বে তার গ্রুপের সদস্যরা কার্যালয়ে প্রবেশ করে। তারা সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ কুঞ্চন কান্তি সরকারের কোমড়ে পিস্তল ঠেকিয়ে তাকে ও কুঞ্জনকে বেধড়ক মারপিট করে। এ ঘটনার পর দিন কুঞ্চন কান্তি সরকার বাদী হয়ে সংগঠনের সভাপতি রনজিৎ সরকার টিটু, অপর বাস মালিক কেএনএম ফকরুল হাসান, আব্দুস সাত্তার, প্রফুল্ল মন্ডল ও মোঃ মিজানকে আসামী করে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করে।
অপরদিকে, গত ১০ অক্টোবর বাস মালিক একেএমডি মোরতোজা বাদী হয়ে সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ কুঞ্চন কান্তি সরকার, সাধারণ সম্পাদক সুকুমার ভৌমিক, সহ-সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ কর্মকার, কার্যনির্বাহি সদস্য বিপ্লব দত্ত ও বাস মালিক ফজলুর রহমানকে আসামী করে রাজবাড়ী থানায় পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করে।
রাজবাড়ী জেলা পরিবহণ মালিক গ্রুপের সহ-সভাপতি পরিমল কুমার সাহা জানান, সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ কুঞ্চন কান্তি সরকার, সাধারণ সম্পাদক সুকুমার ভৌমিক, সহ-সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ কর্মকার, কার্যনির্বাহি সদস্য বিপ্লব দত্ত ও বাস মালিক ফজলুর রহমান গত মঙ্গলবার দুপুরে রাজবাড়ীর ১ নং আমলী আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করে। আদালতের বিচারক মোস্তফা রেজানুর তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ ঘটনার পর সাধারণ সম্পাদক সুকুমার ভৌমিকের সমর্থক বাস মালিক ও শ্রমিকরা রাজবাড়ীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ও মুরগির ফার্ম বাস ষ্ট্যান্ডে সড়ক অবরোধ করে।
রাজবাড়ী জেলা পরিবহণ মালিক গ্রুপের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুরাদ হাসান জানান, সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ কুঞ্চন কান্তি সরকারের দায়ের করা মামলায় গত রবিবার আদালতে জামিন আবেদন করেন সংগঠনের সভাপতি রনজিৎ সরকার টিটু, অপর বাস মালিক কেএনএম ফকরুল হাসান, আব্দুস সাত্তার, প্রফুল্ল মন্ডল ও মোঃ মিজান। আদালত তাদের আবেদন মঞ্জুর করেছেন।
উভয় মামলারই তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রাজবাড়ী থানার ওসি শহীদুল ইসলাম বলেন, অভ্যন্তরিন কোন্দলের জের ধরেই ওই মারামারির ঘটনা ঘটে। আদালত এক পক্ষের জামিন আবেদন বাতিল করায় হঠাৎ করেই বাস মালিক ও শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে। খবর পেয়ে রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহম্মেদ, সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবিবসহ থানা পুলিশের সদস্যরা প্রথমে মুরগির ফার্ম ও পরে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে গিয়ে সড়কের উপরে রাখা বাস সড়িয়ে দিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

(Visited 20 times, 1 visits today)