বালিয়াকান্দিতে বিছা পোকার আক্রমনে পাটের ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কা

25-1

সোনালী আশ খ্যাত পাট উৎপাদনে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলা আদিকাল থেকেই বিখ্যাত। এ অঞ্চলে প্রচুর পরিমান পাট উৎপাদন হয়। বর্তমানে পাটে বিছা পোকার আক্রমনে ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কায় ভুগছে পাটচাষি কৃষকরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন নারুয়া, বালিয়াকান্দি, বহরপুর, ইসলামপুর, নবাবপুর, জামালপুর, জঙ্গলে চলতি পাট মৌসুমে ৯ হাজার ১শত ৯০ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে। বিগত বছর পাটের আবাদ হয়েছিল ৯ হাজার ১শত ২০ হেক্টর জমিতে। পাট চাষে আবহাওয়ার অনুকুল পরিবেশ থাকায় বাম্পার ফলনের আশা থাকলেও বর্তমানে বিছা পোকার আক্রমনের কারনে ফলন বিপর্যয়ের শঙ্কায় ভুগছে কৃষকরা।

পাটচাষী ফারুক, কামরুল, সালাম ও কালাম জানান, এ বছর পাট চাষে যে পরিমান অর্থ খরচ হয়েছে তা ওঠাও দুষ্কর হয়ে পড়েছে। প্রথম দিকে পাট বপন করার সময় খড়ার কারনে সেচ প্রদান করতে হয়। ঘন ঘন সেচ ও খড়ায় পাট মরে যায়। তারপরও ভালো ফলনের আশা করলেও বর্তমানে বিছা পোকার আক্রমন হওয়ায় ফলন বিপর্যয় হবে। এতে কৃষকের পাট চাষের খরচ উঠবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করছেন।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা গোলাম ছামদানী জানান, বিছা পোকার আক্রমনে গাছ লম্বা হয় না, আর আশ বেশি হয় না। ফলে উৎপাদন হ্রাস পাবে। পাটের বিছা পোকার আক্রমনের হাত থেকে রক্ষা পেতে ফ্লোরোপাইরিফস স্প্রে করতে হবে। কৃষকদেরকে স্প্রে করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

(Visited 75 times, 1 visits today)