পরীক্ষায় অংশ গ্রহণে অনিশ্চিয়তার শিকার হলো রাজবাড়ীর ৩ শত জেএসসি পরীক্ষার্থী

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

RAJBARIR - (3)-26.10

আর মাত্র ৫ দিন পর (১ নভেম্বর) শুরু হবে জেএসসি পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের লক্ষে প্রস্তুতি নেয়া রাজবাড়ী সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ৩ শত শিক্ষার্থী রেজিষ্টেশন ও প্রবেশপত্র নিয়ে জটিলতার শিকার হয়েছে। যে কারণে ওই সব শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মনে এ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণে অনিশ্চিয়তার দেখা দিয়েছে। শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার প্রস্তুতির বাদ দিয়ে ঘুরছে শিক্ষকদের টেবিলে টেবিলে।

গতকাল সোমবার দুপুরে ওই বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয় চত্বরে আসা জেএসসি পরীক্ষার্থীদের বিমর্ষ চেহারা। সাথে আসা অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন। তারা পরীক্ষার প্রস্তুতির বাদ দিয়ে ঘুরছে শিক্ষকদের টেবিলে টেবিলে।
এসময় একাধিক পরীক্ষার্থী জানায়, আগমী ১ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে জেএসসি পরীক্ষা। ওই পরীক্ষায় অংশ নিতে তারা পুরোদমে প্রস্তুতি নিচ্ছে। এর অংশ হিসেবে বিদ্যালয় থেকে ২০ দিন পূর্বে তাদের দেয়া হয়েছে রেজিষ্টেশন কার্ড এবং গত রবিবার দেয়া হয়েছে প্রবেশপত্র। তবে রেজিষ্টেশন ও প্রবেশপত্রে নাম ঠিকানা সঠিক থাকলেও নেই তাদের ছবি। গতকাল সোমবার সকালে বিদ্যালয় থেকে এসএমএস-এর মাধ্যমে জানানো হয়েছে, রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র গুলোর ফটোকপি রেখে আসল কপি দ্রুততার সাথে জমা দিতে। যে কারণে তারা রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র নিয়ে বিদ্যালয়ে এসেছেন এবং তা জমা দিচ্ছেন।
তারা আরো বলেন, রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্রে ছবি না থাকার কারণে তারা পরীক্ষার হলে হয়রানির শিকার হতে পারেন এবং পরীক্ষকরা তাদের পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে নাও দিতে পারেন। ফলে চরম উৎকন্ঠায় রয়েছে তারা। যাদিও এখন তাদের পড়ার টেবিলে বসে পুরোদমে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেবার কথা। অথচ এই জটিলতার কারণে তারা পড়াশোনা বাদ দিয়ে বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষকদের টেবিলে টেবিলে ঘুরছেন। যা তাদের ও অভিভাবকদের জন্য চরম বিব্রতকর বিষয় হয়ে দঁড়িয়েছে।
সেখানে আসা পরীক্ষার্থী অনিকা তাবাচ্ছুমের মা হাসিনা বুলবুল বলেন, কোমলমতি এসব শিশুরা ওই পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করার শুরুতেই মানসিক ভাবে হোঁচট খেল। পরীক্ষার প্রস্তুতি বাদ দিয়ে এখন তারা বিদ্যালয়ে ঘুড়ছে। তাদের এ অবস্থা দেখে এখানে আগত অভিভাবকরাও শংকিত হয়ে পরেছেন। রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্রে ছবি না থাকায় পরীক্ষার হলে তাদের সন্তানরা কোন সমস্যার সম্মুখীন হলে এর দায় কে নেবে। তাই তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখাসহ এ ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবীও দাবী জানান।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দা মনোয়ারা বেগম বলেন, তারা যথা সময়ে জেএসসি পরীক্ষার্থীদের ছবি, জন্ম সনদ ও বাবা-মার ভোটার আইডি কার্ড ঢাকা বোর্ডে পাঠিয়েছেন। তবে বোর্ড থেকে রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র গুলো তাদের কাছে পাঠানো হলেও তাতে শিক্ষার্থীর ছবি নেই। রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র গুলো শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণের পর বিষয়টি ধরা পরে। যে কারণে শিক্ষার্থীদের ডেকে এনে তাদের কাছ থেকে ও গুলো জমা নেয়া হচ্ছে। যা বোর্ডে আবার ফেরৎ পাঠানো হবো। বোর্ড কর্তৃপক্ষের পরামর্শে পরীক্ষার্থীদের রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্রের ফটোকপিতে তিনি স্বাক্ষর করে দিচ্ছেন। স্বাক্ষর করা ওই ফটোকপি নিয়ে তারা রাজবাড়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের পরীক্ষার হলে যেতে পারবে। একই সাথে সংশোধিত রেজিষ্টেশন কার্ড ও প্রবেশপত্র আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে আনার চেষ্টা করবেন বলেও প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

(Visited 34 times, 1 visits today)