শিক্ষককে হাতুরি পেটার ঘটনায় পাংশা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সম্পাদক ফারুক বহিস্কার-

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

দূর্বৃত্তদের হাতুড়ি পেটায় রাজবাড়ীর পাংশা জর্জ পাইল মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তপন কুমার সরকার আহত করার ঘটনায় পাংশা উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সম্পাদক ফারুক প্রমাণিককে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। গত শনিবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন স্বাক্ষিরত প্রেস বিজ্ঞপ্তি মাধ্যমে বহিস্কারের তথ্য জানাগেছে। ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের এক জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ফারুক প্রমাণিককে বহিস্কার করা হলো।
শিক্ষক তপনের বাবা ও পাংশা পৌরসভার নারায়নপুর গ্রামের বাসিন্দা শিবনাথ সরকার জানান, গতকাল রবিবার বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি থাকা ওই শিক্ষককে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ সাইফুর রহমান সোহাগের নেতৃত্বে ১০/১২ জন কেন্দ্রীয় নেতা দেখতে যান। তারা ওই শিক্ষকের প্রতি সমবেনা প্রকাশ করেন। সেই সাথে ওই ঘটনার সাথে জড়িত থাকার দায়েই পাংশা উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সম্পাদক ফারুক প্রমাণিককে বহিস্কার করা হয়েছে বলেও তারা জানান। তিনি আরো বলেন, ওই ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে পাংশা থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ ওই মামলায় প্রধান আসামি ফারুক প্রমাণিকসহ ছয় জনকে গ্রেপ্তার করে। তবে আসামিরা বর্তমানে আদালতের দেয়া জামিনে মুক্ত রয়েছে।
পাংশা থানার ওসি মোফাজ্জেল হোসেন জানান, ঘটনার এক সপ্তাহ পূর্বে জেলার পাংশা জর্জ পাইল মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীতে পুড়–য়া এক ছাত্রী ও তার দরিদ্র পরিবারের সদস্যরা পাংশা ছেড়ে ভারতে চলে যায়। পরিবারটি ভারতে যাবার প্রক্কালে তারা পাশ^বর্তী কুষ্টিয়া জেলা খোকশা এলাকায় পৌছলে পাংশা উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সম্পাদক ফারুক প্রমাণিকের নেতৃত্বে তার সহযোগীরা ওই ছাত্রীর পরিবারটিকে সেখানে গিয়ে আটক করে। একই সাথে তারা ওই ছাত্রীর বাবা-মা’র কাছ থেকে নগদ টাকাসহ বেশ কিছু মালামাল ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে ওই ঘটনাটি ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা শিক্ষক তপন কুমার সরকারকে অবহিত করে। বিষয়টি শোনার পর তিনি দুঃখ প্রকাশ করে তার কয়েকজনকে অবহিত করেন। আর এতেই ক্ষিপ্ত হয় ফারুক ও তার সহযোগীরা। তারা গত ১২ আগষ্ট রাত সাড়ে ৯টার দিকে শিক্ষক তপনকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
আহত শিক্ষক তপন কুমার সরকার জানান, রাতের আঁধারে দূর্বৃত্ত তার দুই পা, ঘাড় ও পিঠে হাতুরী পেটা করেছে। সেড়ে উঠতে কমপক্ষে ৬/৭ মাস লাগবে। ঘটনার পর থেকেই তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

(Visited 230 times, 1 visits today)