রাজবাড়ীতে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের বীজ বিতরণ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

রাজবাড়ীতে  সোমবার দুপুরে প্রথম আলো ট্রাস্টের উদ্যোগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিভিন্ন সবজির বীজ বিতরণ করেছে বন্ধুসভার সদস্যরা।
রাজবাড়ীর কালুখালী ও পাংশা উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের কৃষকদের মধ্যে এসব বীজ বিতরণ করা হয়। ইউনিয়ন তিনটি হলো কালুখালীর রতনদিয়া, কালিকাপুর ও পাংশা উপজেলার হাবাসপুর। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এসব এলাকার একশ ৮০ জন প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে লাউ, কুমড়া, লাল শাক, পালং শাক, মূলা, মরিচ, পেঁয়াজ, করলা, সরিষা, ডাটা শাকের বীজ বিতরণ করা হয়। দুপুর ১২ টার দিকে পশ্চিম হরিনবাড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বীজ বিতরণ শুরু হয়।
বীজ বিতরণে সহযোগিতা করেন কালুখালী শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ আজিজ, কালুখালী উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, পশ্চিম হরিনবাড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শামসুল ইসলাম, রতনদিয়া ইউপি সদস্য বিল্লাল হোসেন, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ কুমার রায়, সমাজ উন্নয়ন কর্মী সান্তনা বিশ^াস।
এসময় প্রথম আলো রাজবাড়ী বন্ধুসভার সহসভাপতি শামীমা আক্তার মুনমুন, সাধারণ সম্পাদক শুভ চন্দ্র সিংহ, নারী বিষয়ক সম্পাদক ফারজানা ইয়াসমিন, অর্থ সম্পাদক আসাদ হোসেন, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক কে এম সাব্বির হোসেন, প্লাবন ব্যাপারী, পুলক প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। বীজ বিতরণ কর্মসূচির সার্বিক সমন্বয় করেন প্রথম আলোর রাজবাড়ী প্রতিনিধি এজাজ আহম্মেদ।
হরিনবাড়িয়া গ্রামের কৃষক চাঁনমিয়া মাতুব্বর বলেন, খেতের ফসল পানিতে তলিয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। হাতে তেমন টাকা পয়সাও নেই। পালং শাকের বীজ পেয়ে খুব ভালো হলো। জমিটা আরেক শুকালেই খেতে বীজ বপণ করবো। একই গ্রামের বাসিন্দা বান্দু শেখ বলেন, আগে বন্যা আইলে রিলিফ পেতাম। এবার বেচুন পেলাম। খুব ভালো লাগছে। নিজের খেতে নিজেই চাষ করতে পারবো।
কৃষক আরশেদ আলী শেখ, মোকছেদ আলী মোল্লা, জয়নাল মোল্লা, মানিক শেখরা অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, বন্যায় খেতের ফসল সব নষ্ট হয়ে গেছে। কিন্তু খেতে পলিমাটি জমা হইছে। প্রথম আলোর দেওয়া বীজ পেলাম। জমিতে টান পড়লেই আবার নতুন করে চাষ শুরু করবো।

(Visited 16 times, 1 visits today)