বালিয়াকান্দির স্কুল ছাত্রী ঐশি এ্যাথলেটিক্স হতে চায়-

সোহেল রানা, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

100_5937

বাবা হারা তাসলিমা খাতুন ঐশি লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলায় বিশেষ অবদান রাখছে। সে ভবিষ্যতে ভালো মানের এ্যাথলেটিক্স হয়ে জাতীয় পর্যায়ের খেলার সুযোগ চায়। তাই নানা লুৎফর রহমানের অনুপ্রেরনায় মাতা নাসিমা খাতুনের ইচ্ছায় ও স্কুলের ক্রিড়া শিক্ষক শরিফুল ইসলামের প্রচেষ্টায় ইতিমধ্যেই উপজেলা, জেলা ও আঞ্চলিক পর্যায়ে অংশগ্রহন করে কৃতিত্ব অর্জন করেছে। তাসলিমা খাতুন ঐশি রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের চরদক্ষিণবাড়ী গ্রামের মৃত এন্তাজ মন্ডলের মেয়ে। সে মাজবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীতে পড়ালেখা করে।
মাজবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রিড়া শিক্ষক শরিফুল ইসলাম জানান, স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী তাসলিমা খাতুন ঐশি ২০১৪-১৫ সালে ৪৪ তম বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রাজবাড়ী জেলা পর্যায়ে বালিকা বড় বিভাগে দীর্ঘ লম্প ২য় স্থান অধিকার করে, জেলা পর্যায়ে বালিকা বড় বিভাগে চাকতি নিক্ষেপে প্রথম স্থান অধিকার করে। ২০১৬ সালে ৪৫তম বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল ও মাদরাসা শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় রাজবাড়ী জেলা পর্যায়ে লৌহ গোলক নিক্ষেপ বালিকা বড় বিভাগে অংশ গ্রহন করে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে ও রাজবাড়ী জেলা পর্যায়ে চাকতি নিক্ষেপ প্রতিযোগিতায় বালিকা বড় বিভাগে অংশগ্রহন করে প্রথম স্থান অর্জন করে। রাজবাড়ী জেলা পর্যায়ে ভলিবল খেলায় রানার আপ স্থান অর্জন করে। ২০১৬ সালে বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল ও মাদরাসা ক্রীড়া সমিতি পদ্ম-অঞ্চল ময়মনসিংহ ৪৫তম শীতকালীন খেলাধুলা ও এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় বালিকা বড় গোলক নিক্ষেপ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করে। ২০১৬ বাংলাদেশ জাতীয় স্কুল ও মাদরাসা ক্রীড়া সমিতি উপ-অঞ্চল, ঢাকার ৪৫তম শীতকালীন এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় গোলক নিক্ষেপ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে। চাকতি নিক্ষেপ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করে ও ব্যাক্তিগত রানার আপ হয়।
তিনি আরো বলেন, তাসলিমা খাতুন ঐশি একজন ভালো মানের এ্যাথলেটিক্স। তার মেধা ও প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকলে জাতীয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ পাবে।
ঐশির মাতা নাসিমা খাতুন জানান, ঐশি তার নানা লুৎফর রহমানের অনুপ্রেরনায় ও ক্রিড়া শিক্ষক শরিফুল ইসলামের প্রচেষ্টায় প্রতিবছরই সাফল্যে অর্জন করছে। ভবিষ্যতে তার এ সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি চেষ্টা চালিয়ে যাবেন। ঐশি যাতে জাতীয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ পায় তার জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেন।
তাসলিমা খাতুন ঐশি জানায়, সে লেখাপড়ার পাশাপাশি জাতীয় পর্যায়ের একজন এ্যাথলেটিক্স হতে চায়। এজন্য সকলের দোয়া ও আন্তরিকতা কামনা করেছে।

(Visited 37 times, 1 visits today)