জবাব দিয়েও পার পাচ্ছেন না বালিয়াকান্দি আ:লীগের ৮ নেতা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

nnRed-1

সিদ্ধান্ত অমান্য করে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ার অভিযোগে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে ৩১ জন আওয়ামীলীগ নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছিল। তবে ওই সব নেতাদের মধ্যে ২৮ জন সে নোটিশের জবাব দিলেও ৮ জন নেতাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গত শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের এক সভায় ওই বহিস্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সনজিৎ রায় জানান, গত ২৭ এপ্রিল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সভায় সর্বসম্মতিক্রমে উপজেলার নারুয়া, বালিয়াকান্দি, জামালপুর, নবাবপুর, ইসলামপুর, বহরপুর ইউনিয়নে দলীয় মনোনীত চেয়ারম্যান প্রাথীদের বিপক্ষে অবস্থান করাদের সনাক্ত করা হয়। একই সাথে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করার দায়ে নারুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল খালেক মন্ডল, সহ-সভাপতি লিয়াকত আলী খান, বালিয়াকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শামসুল আলম মন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর ওহাব মোল্যা, ৬নং ওয়ার্ডের সভাপতি সায়মত আলী শেখ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ইউনুছ আলী মোল্যা, সদস্য হাসেনুর রহমান কবির, হাজী শাহজাহান মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মকলেছুর রহমান, ৯ নং ওয়ার্ড সভাপতি গোলাম মোস্তফা, জামালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য শামীমুজ্জামান শামীম, বহরপুরের আব্দুর রশিদ বিশ্বাসসহ ৬ টি ইউনিয়নের ৩১ জন নেতা-কর্মীকে কেন দল থেকে বহিস্কার করা হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়।
উপজেলা আওয়ামীলীগের আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শামসুল আলম সুফি জানান, দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে কাজ করার দায়ে ৩১ জন নেতাকেই কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছিল। তবে নোটিশ পাওয়াদের মধ্যে ২৮ জন জবাব প্রদান করে। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভায় নোটিশের জবাব বিশ্লেষণ করে ৮ জন নেতাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। আর ওই ৮ জন নেতাকে দল ও পদ থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শিঘ্রই তাদেরকে বহিস্কারের পত্র প্রদান করা হবে।
উল্লেখ্য, ২৩ এপ্রিল বালিয়াকান্দি উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে নারুয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুস সালাম মাষ্টার, জামালপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনুছ আলী সরদার, ইসলামপুর ইউনিয়নে সতন্ত্র প্রাথী আবুল হোসেন খান বিজয়ী হয়। বালিয়াকান্দি ইউনিয়নে মোঃ নায়েব আলী শেখ, নবাবপুর ইউনিয়নে আবুল হাসান আলী, বহরপুর ইউনিয়নে রেজাউল করিম আওয়ামীলীগ থেকে বিজয়ী হন। জঙ্গল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নৃপেন্দ্রনাথ বিশ্বাস বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় বিজয়ী হন।

(Visited 70 times, 1 visits today)