ঢাকাFriday , 15 April 2022

“ নববর্ষের আহ্বান ” – লেখক : ডাঃ সুনিল কুমার বিশ্বাস –

Link Copied!

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : 

নববর্ষের নতুন প্রভাতে নবীন সূর্যালোকে করি অবগাহন, শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা সহ সবাই কে জানাই নববর্ষের রক্তিম অভিবাদন। ঐ বুঝি এলো রে বাংলায় নতুন বৈশাখ,শুরু হলো নববর্ষ। খুলে দে অাজ বদ্ধ দুয়ার আমরা রহিব না অার হয়ে বিমর্ষ। দূর হয়ে যাক জীর্ন পুরাতন বৎসরের আবর্জনা, দূর হয়ে যাক যতসব মলিন মর্ম দুর্ভাবনা। বৈশাখী ঝড়ো বৃষ্টিতে ভিজে প্রকৃতি হয়ে যাক নির্মল ধরা হয়ে উঠুক বসবাসের যোগ্য বয়ে যাক বিমল বায়ু ধরারে করিতে উজ্জ্বল । ভুলে যাই মনে জমে থাকা ক্লেদ ও গ্লানি, ধরায় আসুক শ্বেত শুভ্র মঙ্গলের বীণাপাণি। দুনিয়া হয়ে যাক উজ্জ্বল শুদ্ধ আর মঙ্গলময়, আর কোন ভয় নাই আমরা গড়িবো নতুন পৃথিবী আমরা হয়েছি নির্ভয়। বাহির হয়েছি মোরা পথে আজিকে প্রলয়ের আহ্বান, জাগিতে হইবে বাঙ্গালি তোমারে করিতে নিমূল দূর্ধষ দুঃশাসন।

দূর হয়ে যাক যতসব অশুভ শক্তি, অন্তরে বয়ে যাক মঙ্গলময় ভক্তি। কিসের তরে গো পরান আজিকে হয়েছে উন্মনা ও উতলা, ধরায় বহিবে শান্তির হাওয়া হয়ে নির্মলা। আবার আসিল ধরায় চিরচেনা সেই কাল বৈশাখী, ওরে আর নয় অলসতা, এবার উঠ্ আজি প্রলয় তোরে ঐ যায় ডাকি। বৈশাখ এসেছে হৃদয়ে উঠেছে সৃষ্টির নতুন মাতন, তুই কি অাজিকে হয়েছিস বধির, ত্বরা করে সাড়াদে নববর্ষ করে আহ্বান, দূর হয়ে যাক যত অনাসৃষ্টির যত আছে কালো ভয়। বৈশাখ তোরে ডাক দিচ্ছে হতে নির্ভয় আর দানিছে অভয়, ঐ আবার এলো প্রতাপান্বিত হয়ে উত্তর আকাশে যমসম কালো মেঘের আনাগোনা, বাজাও তোমার দুন্দুভি বীনা দাও দূর করে আজিকে মনের সব গ্লানি ও আবর্জনা।

নব সৃষ্টির উল্লাসে আজি সবাই উঠেছে মাতি, পোহাইবে সবে অাজি দুঃস্বপ্নের কাল রাতি। মনে বাজিছে আনন্দ অার মঙ্গলের কত যে গীতি, সবার মন হতে মুছে যাক অাজি সব রকমের ভীতি। কোথা তোরা সুবোধ বালকেরা হয়ে ওঠ সবে চঞ্চল, আর নেই সময় কেবলই সারাদিন তোরা রহিবি বসিয়া ধরিয়া মায়ের নিরাপদ অঞ্চল। বৈশাখের খরতাপে পুড়ে খাক হয়ে যায় মনের যত ময়লা, সেসব আজি জ্বলে পুড়ে হয়ে যাক কাল কয়লা। নববর্ষের নতুন সূর্যের পরশে হয়ে যা তোরা স্বর্ণ, তখন মানুষ প্রকৃতি কেউ রবে না অার হয়ে বিবর্ণ।

নববর্ষের নতুন সূর্য বারে বারে তোরে করিছে আহ্বান, খুলে ফেল সকল বন্ধন অার দূর হয়ে যাক তোদের সকল ক্রন্দন, ধ্বনিছে সৃষ্টির নতুন গান,নহে নহে ধ্বংসের প্রলয় বিষান। নবসৃষ্টির উন্মাদনায় নতুনরূপে জেগে ওঠে আজি ধরা, সময় যে বহিয়া যায় উঠো সবে করিয়া ত্বরা। বাঙ্গালি জাতীয়তাবাদের চেতনারে নাসিতে দন্ত নখ বিকশিত করে ক্রমশঃ জাগিছে ভয়ংকর মৌলবাদ, বাঙালি তুই কবে জাগিবি নির্মূল করিতে এই নব্যফ্যাসিবাদ? তাদের ঘৃনিত অাস্ফলন অার উল্লম্ফন এখন রুখে দিতে না পারলে ওদের শক্তি যাবে যে বেড়ে, তখন ওরা তোর মুখের অন্ন কাড়িয়া খাবে, অাসবে ওরা তেড়ে। ওরে জেগে ওঠ মহাশক্তিতে অাজ, এতো নয় সময় তোর করিবার পরিহাস, নষ্ট করিলে সময় ওরে ঘটে যাবে তোর মহাসর্বনাশ।

১লা বৈশাখ ১৪২৯

রাজবাড়ী।

(Visited 11 times, 1 visits today)