রাজবাড়ীতে পালিয়ে আসা করোনা রোগী ও তার স্বামীকে ফের পাঠানো হলো ঢাকায়, ২৮ জনের নমুনা সংগ্রহ-

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে আসা এক নারী করোনা রোগী ও তার পুলিশ কনষ্টেবল স্বামীকে পুনরায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে একটি এ্যাম্বুলেন্সে তাদের ঢাকায় পাঠানো হয়ে।
এদিকে, গত বুধবার সকালে করোনায় আক্রান্ত ওই নারী ও তার স্বামীকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের আইসোলেশন কর্ণারে ভর্তি করার খবরে বৃহস্পতিবার এ হাসপাতালে রোগীর সমাগম ছিলো অনেক কম।
রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, ওই নারী ও তার স্বামীকে পুনরায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বৃহস্পতিবার ১০ জন সহ এ পর্যন্ত ২৮ জনের করোনা ভাইরাস সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করে তা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। যদিও এর মধ্যে চার জনের রিপোর্ট ফিরে এসছে, তবে তা নেগেটিভ। যাদের নমুনা পাঠানো হয়েছে তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসে সনাক্ত হওয়া এক নারী (৩২) রোগী সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে রাজবাড়ীর গ্রামের বাড়ীতে চলে এসেছে। এ নিয়ে রাতভর পুলিশি পাহারা পর ওই নারী রোগি ও তার পুলিশ কনষ্টেবল স্বামীকে বুধবার সকালে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের আইসোলেশন কর্ণারে নিয়ে আসা হয়েছে। সেই সাথে ওই পরিবারটির গ্রামসহ পাশ^বর্তী ৩টি গ্রাম ডকডাউন করেছেন বলে জানিয়েছেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইদুজ্জামান খান।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, গত মঙ্গলবার রাতে করোনা ভাইরাসে সনাক্ত হওয়া এক নারী রোগী সোহওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে একটি মাইক্রোবাসে তার স্বামীর সাথে রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের বক্তারপুর গ্রামের বাড়ীতে চলে আসে। বিষয়টি তারা জানতে পেরে প্রায় পুরো রাত ওই বাড়ীটি তারা ঘিরে রাখে। সেই সাখে বিষয়টি তারা জেলা স্বাস্থ্য বিভাগতে অবহিত করে। পরে তাদেরকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের আইসোলেশন কর্ণারে নিয়ে যাওয়া হয়।

(Visited 317 times, 1 visits today)