গোয়ালন্দ ভূমি অফিসের নৈশপ্রহরী ভেঙ্গে দিলো রাজবাড়ীর পত্রিকা বিক্রেতা রেজার বৃদ্ধ মা-এর হাত –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা ভূমি অফিসের নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজী ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে জেলার শহরের পত্রিকা বিক্রেতা রেজাউল মোল্লার বাড়ীতে হামলা, সীমানা বেড়া ভাংচুর, পিটিয়ে বৃদ্ধ মায়ের হাত ভেঙ্গে দেয়া এবং স্ত্রী ও কলেজ ছাত্রী ভাতিজিকে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে রাজবাড়ী থানার পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
পত্রিকা বিক্রেতা রেজাউল মোল্লা বলেন, তার বাড়ী রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের ইন্দ্রনারায়নপুর মৌজার কামালদিয়া গ্রামে। বেশ কয়েক মাস আগে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা লিখিত ভাবে আউটসোসিং-এর মাধ্যমে নিযুক্ত গোয়ালন্দ উপজেলা ভূমি অফিসের নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজী ও প্রতিবেশি আরো দুই জনের বসতবাড়ীর সীমানা নির্ধারণ করে দেন। যে লিখিত বন্টন নামায় নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিনসহ সকল পক্ষই স্বাক্ষর করেন। সাম্প্রতি সে (পত্রিকা বিক্রেতা রেজাউল মোল্লা) সমিতি থেকে ঋণ নিয়ে এবং বাড়ীর গরু বিক্রি করে একটি পাকা ঘর নির্মাণের লক্ষে নিজের বসত ঘর ভেঙ্গে ফেলেন। আর এর পরই নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন তার ক্ষমতা দেখাতে মারিয়া হয়ে ওঠে। সে পাকা ঘর নির্মাণ কাজ শুরুর পর পরই রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ওই ঘর তৈরীর বন্ধ করতে ১৪৪ ধারা জারির আদেশ জারি করায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই আদেশ জারিও করে। ফলে রেজাউল মোল্লা পাকা ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখে। এরই মাঝে রবিবার দুপুরে রেজাউল মোল্লা বাড়ীতে না থাকার সুযোগে নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন ও তার সহযোগিরা জোর পূর্বক ওই বাড়ীতে প্রবেশ করে সীমানা বেড়া ভাংচুর করে। সেই সাথে পিটিয়ে তার বৃদ্ধ মা নুরজাহান বেগমের ডান হাত ভেঙ্গে দিয়েছে এবং স্ত্রী জেসমিন বেগম ও কলেজ ছাত্রী ভাতিজি শিরিন আক্তারকে মারপিট করে। খবর পেয়ে রাজবাড়ী থানা পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তার মাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দের সহকারী কমিশনার (ভুমি) আব্দুল আল মামুন জানান, তাকে বিষয়টি মোবাইল ফোনে গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানিয়েছেন। তবে তিনি নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজীকে প্রশ্রয় দিচ্ছেনা বলেও জানান।
গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবায়াত হায়াৎ শিপলু জানান, কিছু দিন পূর্বে পত্রিকা বিক্রেতা রেজাউল মোল্লা তার অফিসে আসে এবং নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজী কর্তৃক তার জমিতে ১৪৪ ধারা জারির অভিযোগ করে। পরে তিনি নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজীকে ডেকে কোন ধরণের খারাপ পরিস্থিতি সৃষ্টি না করার জন্য সতর্ক করেন। তার পরও গতকাল মারামারির ঘটনা ঘটায় তিনি রেজাউল মোল্লাকে মামলা করার নির্দেশ প্রদান করেছেন।
বিষয়টি রাজবাড়ীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আশেক হাসানকে অবিহিত করা হলে তিনি বলেন, পত্রিকা বিক্রেতা রেজাউল মোল্লাকে নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করতে বলেন।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, গোয়ালন্দের সহকারী কমিশনার (ভুমি) আব্দুল আল মামুন নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজীর পক্ষে ফোন করে ঘটনা জানতে চান। তিনি ঘটে যাওয়া মারামারি ও সীমানা বেড়া ভাংচুরের ব্যাপারে নৈশপ্রহরী আলীমুদ্দিন কাজীর ভুমিকার কথা তাকে জানিয়েছেন। এ ঘটনায় রেজাউল মোল্লা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

(Visited 919 times, 5 visits today)