গোয়ালন্দে ধর্ষণে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্তা, আদালতে ধর্ষক রং মিস্ত্রি’র স্বীকারোক্তি –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে মাদ্রাসায় পড়–য়া পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী (১৩) ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্তা হয়ে পরেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে আজ বুধবার সকালে গোয়ালন্দ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ মোঃ ইয়াছিন মন্ডল (৩৪) নামে এক রং মিস্ত্রিকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃত ইয়াছিনকে আজ বিকালে পুলিশ আদালতে হাজির করা হলে সে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করে। পরে তাকে কারাগারে পাঠায় আদালত। ইয়াছিন গোয়ালন্দ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের আদর্শগ্রামের মৃত নবু মন্ডলের ছেলে।
ওই ছাত্রী জানায়, ইয়াছিন একজন লম্পট। তার স্ত্রী ও মেয়ে সন্তান রয়েছে। তার পরও সে তাকে প্রস্তাব দিতে। বিগত বছরের সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম দিকে সে প্রাইভেট পড়ে বাড়ী ফিরছিলো। নিজের ঘরের কাছাকাছি আসতেই ইয়াছিন তার মুখ বেঁধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। সেই সাথে এ ঘটনা কাউকে বললে তাকে ও তার ভাইকে হত্যা করবে বলে হুমকিও প্রদান করে। যে কারণে সে এ ধর্ষণের কথা কাইকে বলেনি। গত ২৯ জানুয়ারী মাদ্রাসার এ্যাসেম্বিলিতে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় সে মাথা ঘুরে পরে যায়। পরে তাকে গোয়ালন্দ হাসপাতাল এবং সেখান থেকে ফরিদপুরের একটি ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নিয়ে পরীক্ষা করা হয়। সেখানকার চিকিৎসক তাকে জানায় সে চার মাসের অন্ত:সত্তা। পরে সে ঘটনা স্বজদের কাছে খুলে বলে।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়েবীর জানান, আজ সকালে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে ইয়াছিনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে। ওই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ মোঃ ইয়াছিন মন্ডলকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায়। সে আদালতে ১৬৪ ধারায় ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করে। পরে তাকে কারাগারে পাঠায় আদালত।

(Visited 728 times, 1 visits today)