রাজবাড়ীর খানখানাপুরে মা-মেয়ে সহ নিহত ৫ জনের মধ্যে ১ জনের পরিচয় মেলেনি –

নজরুল ইসলাম, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

আজ রবিবার বিকাল পৌনে ৪টার দিকে রাজবাড়ীতে যাত্রীবাহী বাস ও থ্রি-হুইলার মাহেন্দের মুখোমুখি সংঘর্ষে মা-মেয়ে সহ ৫জন মাইন্দ্র যাত্রী নিহত হয়েছে।
ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের বড় ব্রীজ এলাকায় এ দূর্ঘটনাটি ঘটেছে। এতে করে আরো ৩জন যাত্রী গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।
নিহতরা হলো: রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাপুর ইউনিয়নের আহলাদীপুর গ্রামের নায়ের আলী শেখের স্ত্রী মোছা: রাশিদা বেগম(৩৫), মেয়ে দশম শ্রেণীর ছাত্রী মোছা: তাসলিমা আক্তার (১৫), গোয়ালন্দ উপজেলার তোরাপ শেখের পাড়া এলাকার মোস্তফা শেখ(৪০), ফরিদপুরের ঝিলটুলি এলাকার রফিকুল ইসলাম নান্নুর ছেলে অনার্স পড়–য়া শিক্ষার্থী রিফাত (২২) ও অজ্ঞাত (৩৫)।
এ ঘটনায় আহতরা হলেন গোয়ালন্দ উপজেলার আনিস মহুরীর ছেলে অমিত হাসান (২২), গোয়ালন্দ কামরুল ইসলাম সরকারি কলেজের প্রফেসর শহিদুল ইসলাম (৫৫) ও সুমন শেখ (৩৪)। গুরুত্বর আহত অবস্থায় গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলেও উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
জানা গেছে, ফরিদপুর থেকে ঢাকা গামী গ্রীনলাইন ঢাকা মেট্টো-ব- ১৪-০৬৮৩ যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের খানখানাপুর বড় ব্রীজ এলাকায় পণ্যবাহী একটি ট্রাককে ওভার টেকিং করতে গিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা ফরিদপুর গামী মাহেন্দ্রের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে করে ঘটনা স্থলে মাহেন্দ্রের মা-মেয়ে সহ ৫ যাত্রী ঘটনা স্থলে মারা যায়। এতে করে আরো ৩জন যাত্রী গুরুত্বর আহত হলে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের সদস্য ও আহলাদীপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের সদস্যরা ঘটনা স্থলে আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
আহলাদীপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ পারভেজ ভুইয়া জানান, মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রীনলাইন বাসটি আটক করা হলেও ড্রাইভার পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় ৫জন মাহেন্দ্র যাত্রী নিহত হয়েছেন। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে হয়েছে।
রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শেখ শরীফ-উজ-জামান ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।

(Visited 1,726 times, 3 visits today)