পাংশার সাহসী সাহেব আলী –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালান সাহেব আলী। তিনি জেলার পাংশা থেকে একজন যাত্রী নিয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড়ের উদ্দেশ্যে রওনা হন। পথে ছিনতাইকারীরা তার গতিরোধ করে। তারা যাত্রীকে মারপিট ও তার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে তার মোটর সাইকেল ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা করতেই সাহেব আলী একজন ছিনতাইকারীকে জাপটে ধরেন। অপর ছিনতাইকারীরা পেছন থেকে তাকে বেধড়ক মারপিট করলেও তিনি ছাড়েননি জাপটেধরা ছিনতাইকারীকে। এরই মাঝে ঘটনাস্থলে চলে আসে পুলিশ সদস্যরা। সে সময় পুলিশ সদস্যদের সহযোগিতায় আরো এক ছিনতাইকারীকেও আটক করা সম্ভব হয় এবং তার মোটরসাইকেল রক্ষার পাশাপাশি ছিনতাইকারীদের মোটরসাইকেলও আটক করা সম্ভব হয়।
আটককৃতরা হলো, রাজবাড়ী সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের শাইলকাঠি এলাকার সরোয়ার সরদারের ছেলে সোহরাব সরদার (২৮) ও মজলিসপুরের ফয়জউদ্দিন শেখের ছেলে মিজানুর রহমান (২৯)।
সদর থানা সুত্রে জানাগেছে, গত বুধবার রাত ৯টার দিকে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের সদর উপজেলার রাজবাড়ী জুটমিল সংলগ্ন আলাদীপুর ব্রীজ এলাকা থেকে মোটর সাইকেল ছিনতাইকালে সোহরাব সরদার ও মিজানুর রহমান নামে দুই ছিনতাইকারীকে আটক করেন। তবে অপর ছিনতাইকারী ও সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার ওহিদ আলী খানের ছেলে সুমন খাঁ (২৮) পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। সেই সাথে ছিনতাইকারীদের ব্যবহৃত একটি পালসার মোটরসাইকেল জব্দ এবং ছিনতাই হতে যাওয়া প্লাটিনা মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার স্বীকার মোটর সাইকেলের মালিক ও জেলার কালুখালী উপজেলার বাস্তখোলা গ্রামের মৃত কহের আলী মন্ডলের ছেলে সাহেব আলী মন্ডল ওই ৩ জনকে আসামী করে গতকাল বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।


মামলা দায়েরকারী সাহেব আলী মন্ডল জানান, তিনি ভাড়ায় মোটর সাইকেলে যাত্রী পরিবহন করেন। গত বুধবার রাতে ৯টার দিকে পাংশা থেকে ৫০০ টাকা ভাড়া মিটিয়ে গোয়ালন্দ মোড়ের উদ্দোশ্যে যাচ্ছিলেন। রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের সদর উপজেলার রাজবাড়ী জুটমিল সংলগ্ন আলাদীপুর ব্রীজ এলাকায় পৌছলে একটি কালো রং-এর পালসার মোটরসাইকেল নিয়ে ৩ জন ছিনতাইকারী তাদের গতিরোধ করে এবং তার মোটর সাইকেল থেকে যাত্রীকে নামিয়ে রাস্তার পাশে নিয়ে মারধর করার পাশাপাশি টাকা ছিনিয়ে নেয়। পওে ছিনতাইকারীরা তার বাজাজ কোম্পানির প্লাটিনা মোটর সাইকেল ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়। ওই সময় তিনি একজন ছিনতাইকারীকে জাপটে ধরেন। অপর ছিনতাইকারীরা সে সময় পেছন থেকে তাকে বেধড়ক মারপিট করেন। তবে তিনি ছাড়েননি জাপটেধরা ছিনতাইকারীকে। এরই মাঝে ঘটনাস্থলে চলে আসে পুলিশ সদস্যরা। সে সময় পুলিশ সদস্যদের সহযোগিতায় আরো এক ছিনতাইকারীকেও আটক করা সম্ভব হয় এবং তার মোটরসাইকেল রক্ষার পাশাপাশি ছিনতাইকারীদের মোটরসাইকেলও আটক করা সম্ভব হয়।
রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন মজুদার বলেন, থানায় ৩জন আসামির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। একজন পলাতক রয়েছে। তাকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। স্থানীয়রা গ্রেপ্তার হওয়া সোহরাব সরদার ও মিজানুর রহমানকে বেধরক পারপিটও করেছে। আহত সোহরাব রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আসামিরা সকলেই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও ছিনতাইকারী। তাদের নামে একাধিক মামলাও রয়েছে।

(Visited 1,486 times, 1 visits today)