রাজবাড়ীতে যাত্রীবাহী বাস ও পন্যবাহী ট্রাক চলাচল বন্ধ ॥ ভোগান্তিতে যাত্রীরা –

ইমরান হোসেন মনিম, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : 

নতুন সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবীতে রাজবাড়ীতে যাত্রীবাহি বাস, ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান চলাচল বন্ধ রেখেছে চালক ও শ্রমিকরা। এতে ভোগান্তি পড়েছেন ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় গমন ইচ্ছুক সাধারন যাত্রী ও পন্য পরিবহনকারীরা। তবে শ্রমিক সংগঠন গুলোর দাবী, নতুন যে আইন করা হয়েছে তা তাদের জন্য বোঝা। তাই আইনের এ বোঝা মাথায় নিয়ে তারা গাড়ি চালাবেন না। যে কারণে তারা এ আইনের সংশোধনের দাবী জানিয়েছেন।
আজ বুধবার সকাল থেকে রাজবাড়ীর আঞ্চলিক সড়কে কোন যাত্রীবাহি বাস ও পন্যবাহি ট্রাক চলাচল করতে দেখা যায়ানি। রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে যায়নি দুর-পাল্লার ও লোকাল কোন বাস। যাত্রীবাহী বাস ও পন্যবাহী ট্রাক গুলো রাজবাড়ী শ্রীপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে বন্ধ করে রাখা হয়েছে। বাস ও ট্রাক রাজবাড়ী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালসহ বিভিন্নস্থানে বন্ধ এবং যাত্রীবাহি পরিবহনের টিকিটে কাউন্টার গুলোও বন্ধ থাকতে দেখা গেছে।
যাত্রীরা জানান, সড়কে বাস না পেয়ে যাত্রীরা বাধ্য হয়ে অতিরিক্ত টাকা সময় ব্যয় করে তাদের গন্তব্যে পৌছাতে মাহেন্দ্রা, ইজি বাইক ও অটোরিকসায় যাচ্ছেন। ফলে তারা চরম দুর্ভোগ ও ভোগান্তিতে পরছেন। তারা মূলত পরিবহন সেক্টরের লোকদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন। সে কারণে সরকারের কাছে দ্রুত সমাধানের দাবী জানান।
চালক ও শ্রমিকরা বলেন, নতুন যে সড়ক আইন হয়েছে, সেই আইন মেনে চলতে গেলে তারা গাড়ি চালাতে পারবেন না। কারন ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে যাবৎজীবন ও ফাঁসির আইন করা হয়েছে। জরিমানা দেওয়ার যদি সাধ্য থাকতো তাহলে রাস্তায় গাড়ি চালাতেন না। প্রকৃত ভাবে রাস্তার দুরাবস্থার কারনেই এ সড়ক দুর্ঘটনা হয় । নতুন সড়ক আইন চালু করলে তারা রাস্তায় গাড়ি চালাতে পারবেন না। যে কারণে তারা গাড়ি চালানো বন্ধ করে দিয়েছেন। পুরাতন যে আইন ছিল, সেটা বহাল রাখলে তারা আবার সড়কে গাড়ি চালাবেন বলে জানান।
রাজবাড়ী জেলা ট্রাক কাভার্টভ্যান ড্রাইভাস ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক লোকমান হোসেন মনি বলেন, তারা সাংগঠনিক ভাবে গাড়ি বন্ধ করেন নাই। শ্রমিকরা নিজে থেকেই গাড়ি চালানো বন্ধ রেখেছেন। নতুন সড়ক পরিবহনের কিছু আইন হয়েছে, যা সংশোধন করা প্রয়োজন। এ জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

(Visited 301 times, 1 visits today)