রাজবাড়ীতে লবনের বাজার স্বাভাবিক, পাইকারী ও খুচরা দোকানে পর্যাপ্ত লবন –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীতে লবনের বাজার স্বাভাবিক রয়েছে। পাইকারী ও খুচড়া দোকানে পর্যাপ্ত পরিমান লবন রয়েছে। দাম নেওয়া হচ্ছে প্যাকেটের গায়ে লেখা মূল্য অনুযায়ী। গত মঙ্গলবার বিকালের পর থেকে গুজবের কারনে প্রচুর পরিমানে লবন বিক্রি হয়। তবে আজ বুধবার সকাল থেকে রাজবাড়ীর বড় বাজারে দোকান গুলোতে লবনের ক্রেতাদের তেমন ভাবে ভির দেখা যায়নি। তবে গত মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার পাচুরিয়ার ভান্ডারিয়া বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করে। সে সময় ইসরাইল নামে এক দোকানীকে বেশি দামে লবণ বিক্রির জন্য ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাঈদুজ্জামান।
জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে লবনের বাজারে ভ্রাম্যমান ভাবে ঘুরতে দেখা গেছে যাতে কোন দেকানি লবন বেশি দামে ও একজনের কাছে ১ কেজির বেশি বিক্রি না করা হয়। প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে লবনের গুজবে যেন কোন ক্রেতা বেশি দামে লবন ক্রয় না করে সে জন্যে সতর্ক করা হয়েছে।
ক্রেতারা বলেন, তারা বাজারে স্বাভাবিক দরেই ত্রিশ থেকে বত্রিশ টাকা কেজিতে বিভিন্ন কোম্পানির লবন কিনতে পারছেন। গতকাল আর কোন দোকানে লবন কিনতে ভির দেখা যায়নি ক্রেতাদের।
রাজবাড়ী বাজারের মুদি দোকানদার আবুল কালাম বলেন, তারা আগের দামেই লবন বিক্রি করছেন, বেশি দাম নেওয়া হচ্ছেনা কোন ক্রেতার কাছ থেকে। গুজবের কারনে গত মঙ্গলবার প্রচুর পরিমান লবন তারা বিক্রি করেছেন। তবে গতকাল লবন কিনতে ক্রেতাদেও ভির ছিলো না।
রাজবাড়ী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ শরীফ উজ জামান জানান, লবনের দাম বৃদ্ধি নিয়ে জনমনে গুজব সৃষ্টি হয়েছে। যে কারণে পুলিশ বাজার মনিটরিং করছেন। তবে রাজবাড়ীর বাজার স্থিতিশীল। কোথাও লবনের দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে না। অভিযোগ পেলে সত্যতা যাচাই করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, লবণের কোন সংকট নেই। বাজার মনিটরিং করার জন্য বিশেষ টিম কাজ করছে। গুজবে কান না দেওয়ার জন্যেও তিনি সাধারণ মানুষের প্রতি আহবান জানান।

(Visited 35 times, 1 visits today)