পাংশায় কৃষকের ধান লুট, বসত ঘরে আগুন দেওয়ার অভিযোগ –

মাসুদ রেজা শিশির, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : 

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউপির ধুলিয়াট গ্রামের কৃষক নজরুল ইসলাম খানের জমি থেকে জোরপূর্বক ধান লুট করা হয়েছে একই সাথে ওই কৃষকের বসত ঘরে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার প্রতিবেশী সাইফুজ্জামান আজম গং এর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালের দিকে। এ ঘটনা জানতে পেরে পাংশা থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে।
নজরুল ইসলাম খানের ছেলে পাংশা সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী রাজিব খান জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে সাইফুজ্জামান আজম,আশিক,আকরাম,আলিফ,আজাদ,আলম আবির,সাহিদাসহ তাদের ভাড়াটিয়া ২০/২৫ জন লোক নিয়ে আমাদের জমি থেকে জোরপূর্বক ধান কেটে নিয়ে আসে, আমরা বাধা দিলে তারা আমাদের বসত বাড়ীতে আগুন লাগিয়ে দেয় এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। হেলমেট পরিহিত বেশ কয়েকজন অপরিচিত লোক একই সাথে আজম ও তার ভাইয়েরা হেলমেট পড়ে দেশীও অস্ত্রস্বস্ত্র লাঠিশোটা নিয়ে তাদের উপর হামলার চেষ্ঠা করেছে। তবে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছালে তারা তাদের উপর হামলা করতে ব্যার্থ হয়েছে। সরে জমিনে গিয়ে দেখাযায় ধানের জমি থেকে ধানের উপর অংশ থেকে ধান কেটে নেওয়া হয়েছে সেই ধান আজমের বাড়ীর ভিতর দেখাযায়। ওই বাড়ীতে গিয়ে লক্ষ করা যায় বহিরাগত বেশ কয়েকজন বসে আছে জানতে চাইলে তারা বলেন আমাদেরকে ধান কাটতে নিয়ে আসা হয়েছে তাদের অধিকাংশরই বাড়ী পাংশা শহরের অনুতি দুরে মৌকুরী গ্রামে তারা ৩টি অটো নিয়ে আসে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার পর তারা ওই অটো নিয়ে এলাকা ছেড়ে সটকে পড়ে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পাংশা মডেল থানা পুলিশের একটি দল তা নিয়ন্ত্রণ করেন। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানাযায়। এদিকে দির্ঘদিনের জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল বলে জানাগেছে। রাজিব খান আরো বলেন জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আমার পরিবারের সকল সদস্যদের হয়রানী করার লক্ষে পাংশা থানা,রাজবাড়ীর আদালত,মানিকগঞ্জের আদালতসহ বিভিন্ন স্থানে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা হয়রানী মূলক মামলা দিয়ে আমাদের সর্বশান্ত করে ফেলেছে। এ ব্যাপারে সাইফুজ্জামান আজম ও সাহিদা বলেন আমরা আমাদের জমি থেকে ধান কেটেছি। এ সংবাদ লেখাকালীন ওই এলাকায় পাংশা থানা পুলিশ অবস্থান করছে বলে জানাগেছে।

(Visited 366 times, 1 visits today)