পাংশায় মাদ্রাসা ছাত্রীর গর্ভপাত করানোর অভিযোগ –

মাসুদ রেজা শিশির, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর পাংশায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের ফলে গর্ভবতী হয়ে পড়া নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৬) গর্ভপাত করানোর হয়েছে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে জেলার পাংশা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
মামলায় জেলার পাংশা উপজেলার যশাই ইউনিয়নের বাঁশখালি গ্রামের গফুর খার ছেলে কাবিল খা, কাবিলের মা বড়ই বেগম, স্বজন ও একই গ্রামের গফুর খার ছেলে মঞ্জু খা, হিসাই মিয়ার ছেলে সোনাই মিয়া, ইসলাম মিয়ার ছেলে নিলু মিয়াকে আসামি করা হয়েছে।
ওই ছাত্রীর পরিবার ও মামলার এজহার সুত্রে জানাগেছে, কাবিল খা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। যার ফলে ওই ছাত্রী গর্ভবর্তী হয়ে পরে। বিষয়টি জানাজানি হয়ে পরলে ওই ছাত্রী ও তার পরিবারের সদস্যরা কাবিলকে বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। তবে কাবিল ওই ছাত্রীকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। সেই সাথে সু কৌশলে কাবিল ও তার মা বড়ই বেগম ওই ছাত্রীকে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত করায়। পরবর্তীতে বিষয়টি বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মিমাংশার চেষ্টাও করা হয়। তবে মিমাংশা না হওয়ায় ওই ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পাংশা মডেল থানায় মামলা দায়ের করে।
পাংশা থানার ওসি আহসানুল্লাহ জানান, রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ওই ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয়েছে। সেই সাথে আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

(Visited 665 times, 1 visits today)