রাজবাড়ীতে ১০ টাকা কেজির ৫০ বস্তা চাউল উদ্ধার –

রুবেলুর, ইমরান, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নে সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ৩০ কেজি বস্তার ১০ টাকা কেজি চাউলের ৫০ বস্তা চাউল জব্দ করেছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকাবাসী।
শুক্রবার সন্ধ্যায় ইউনিয়নের মহারাজপুর মধ্যেপাড়া এলাকার শাহিন শেখের মুদি দোকান থেকে এ চাউল উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকে মুদি দোকানদার শাহিন শেখ পালাতাক রয়েছে।
জানাগেছে, সরকারের দেওয়া খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির আওতাধীন ১০ টাকা কেজি চাউলের ৩০ কেজির ১০ বস্তা চাউল বসন্তপুর ইউনিয়নের কোলারহাটের ডিলার মতিউর রহমানের কার্ডধারীদের চাউল মহারাজপুরের মুদি দোকানদার শাহিন ভ্যানে করে আজ বিকালে তার দোকানে ১০ বস্তা চাউল নিয়ে আসে। এ সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী শাহিনের মুদি দোকানের সামনে থেকে ওই চাউল জব্দ করে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও প্রশাসনকে জানান। পড়ে পুলিশ এসে ওই দোকান থেকে আরো ৪০ বস্তা চাউল উদ্ধার করে।
বসন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মীর্জা বদিউজ্জামান বাবু জানান, তিনি ইউনিয়ন খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির সভাপতি। তার ইউনিয়নের কোলারহাটের খাদ্য বন্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি চাউলের ডিলার মতিউর অবৈধ ভাবে চাউল বিক্রি করবে। এমন খবর জেনে সব মেম্বরদের খোজ খবর নিতে বলেন। পড়ে বিকালে জানতে পারেন মহারাজপুরের মুদি দোকানদার শাহিন চাউল কিনে তার দোকানে নিয়ে আসছে। এ সময় শাহিনের দোকানের সামনে থেকে মেম্বর ও এলাকাবাসী একটি ভ্যানসহ ১০ বস্তা চাউল জব্দ করে তাকে খবর দেন। পড়ে তিনি ঘটনাস্থলে এসে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পুলিশকে বিষয়টি জানান। পুলিশ এসে ওই ১০ বস্তা চাউল জব্দের পর শাহিনের দোকান খুলে আরো ৪০ বস্তা চাউল পেয়েছে। আসলে মতিউর ডিলার হলেও রাজিব নামের এক ব্যাক্তি এটি পরিচালনা করে। তারা উভয় মিলে অবৈধ ভাবে নিয়ম না মেনে কাউকে না জানিয়ে আজ শুক্রবারে চাউল বিক্রি করছে। কিন্তু শুক্রবারে কোন চাউল বিক্রির কথা না। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এর সঠিক কারণ উদঘাটন করে দোষীদের বিচারের দাবী জানান তিনি।
কোলারহাটের ডিলার মতিউর জানান, তিনি অবৈধ ভাবে কারো কাছে কোন চাউল বিক্রি করেন নি। নির্ধারিত কার্ডধারীদের মধ্যে চাউল বিক্রি করেছেন। ৬৩৬ জন কার্ডধারীর মধ্যে আজ পর্যন্ত ৫৪৩ জনকে চাউল দিয়েছেন, বাঁকী চাউল তার গোডাউনে মজুদ রয়েছে। শুক্রবারে চাউল দেবার বিষয়ে তিনি বলেন, ট্যাগ অফিসারকে জানিয়ে আজ চাউল বিক্রি করেছেন কার্ডধারীদের মধ্যে। কার্ডধারীর বাইরে কারো কাছে কোন চাউল বিক্রি করেন নি।
খানখানাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনর্চাজ মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, বসন্তপুরের মহারাজপুরে শাহিনের দোকানের সামনে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ৩০ কেজির ১০ বস্তা চাউল জব্দ করেছে স্থানীয়রা। এমন সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে এসে ১০ বস্তা চাউল জব্দ করেন। এরপর চাউল নিয়ে আসা শাহিনের দোকান থেকে আরো ৪০ বস্তা চাউল উদ্ধার করেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেন নি। ধারনা করছেন চাউলের ডিলার ও শাহিন যোগসাজসে এ চাউল বিক্রির জন্য এ দোকানে এনে রেখেছেন।

(Visited 208 times, 1 visits today)